আগামী তিন সপ্তাহ কোনো কাজ করতে পারবেন না শুভ

আগামী তিন সপ্তাহ সিনেমার শুটিং তো নয়ই শারীরিক পরিশ্রমের কোনো কাজ করতে পারছেন না চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ। থাকতে হবে পুরো বিশ্রামে। শনিবার হাসপাতাল থেকে কথাগুলো জানালেন শুভ নিজেই।

শুভ বলেন, ‘আজ  এমআরআই এর ফলাফল দেখালাম চিকিৎসকদের। তারা রিপোর্ট দেখে সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন—সর্বনিম্ন তিন সপ্তাহ নিয়মিত থেরাপি নিতে হবে আমাকে।এর আগে কিছুই বলা যাবে না।’   ‘মিশন এক্সট্রিম’ ছবির জন্য বডি ট্রান্সফরমেশনের সময় পা ইনজুর হয়ে শুভর। যা ভোগাচ্ছে এখন। সে সময় বডি ট্রান্সফরমেশনের মিশনে দীর্ঘ নয় মাস পরিশ্রম করে সবাইকে চমকে ঢাকাই ছবির এ নায়ক। কিন্তু সে সময় পাওয়া পায়ের ব্যাথা তাকে দাঁড়াতে দিচ্ছেন না এখন।  দেশ-বিদেশের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে চলার পরও ঈদের আগে সেই ইনজুরি এমন অবস্থায় গিয়েছিল যে, দাঁড়াতে পারছিলেন না এই চিত্রনায়ক। তারপর গেল ২৪ জুলাই রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে এমআরআই করান তিনি। সে ফলাফল দেখে থেরাপির সিদ্ধান্ত কথা জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। শুভ জানান, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের জন্য কাজ করা ইনজুরি বিশেষজ্ঞ দেবাশীষ চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা চলছে। গত এপ্রিলে মুম্বাই থেকে বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীনির্ভর সিনেমা ‘বঙ্গবন্ধু’র ভারতীয় অংশের শুটিং শেষ করে দেশে ফিরেছেন আরিফিন শুভ। এরপর শুটি করেছেন কয়েকটি বিজ্ঞাপনের। হাতে আছে ‘নূর’ সিনেমা। শরীর ঠিক থাকলে সিনেমাটির শুট হতে পারে আগস্টের শেষ দিকে।