স্টাম্পের আঘাতে শিক্ষকের মৃত্যু আটক ১

সাভারের আশুলিয়ায় শিক্ষার্থীর স্টাম্পের আঘাতে কলেজশিক্ষক উৎপল কুমার সরকার (৩৫) নিহত নিহতের ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর বাবা উজ্জল হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ।

আজ বুধবার (২৯ জুন) ভোররাতে কুষ্টিয়া থেকে তাকে আটক করা হয় বলে  নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম কামরুজ্জামান।

তিনি বলেন, ‘অভিযুক্ত শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করা যায়নি। তাকে পালাতে সহায়তার জন্য তার বাবা উজ্জল হোসেনকে রাতে কুষ্টিয়া থেকে আটক করা হয়েছে।

উজ্জল হোসেন কি মামলার আসামি, এমন প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, ‘আমাদের কাছে মনে হচ্ছে তার (উজ্জল) প্রশ্রয়েই ওই শিক্ষার্থী শিক্ষককে আঘাত করেছিল। এছাড়া, তিনি তার ছেলেকে পালাতে সাহায্য করছেন। তাকে মামলায় আসামি করা হবে।

গত সোমবার (২৭ জুন) ভোর ৫টার দিকে দিকে এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার (৩৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।


উৎপল সরকার সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া থানার এঙ্গেলদানি গ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে। তিনি প্রায় ১০ বছর ধরে আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকার হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের কলেজ শাখার রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক ও শৃঙ্খলা কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। অভিযুক্ত শিক্ষার্থী একই প্রতিষ্ঠানের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

ওই কলেজের শিক্ষার্থী ও পুলিশ জানায়, স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার সময় দুপুরের দিকে হঠাৎ অভিযুক্ত শিক্ষার্থী মাঠের একপাশে দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষক উৎপলকে স্টাম্প দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। পরে তাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই সোমবার ভোর ৫টার দিকে তিনি মারা যান।
নিহত শিক্ষকের স্বজনরা জানান, তারা শুনেছেন ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মেয়েদের ইভটিজিংসহ নানান শৃঙ্খলাভঙ্গের কারণে শাসন করায় ওই ছাত্র তাকে হত্যা করেছে।

Related Posts