সৈন্য বাড়াতে মরিয়া রাশিয়া

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীতে আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই সৈন্য বাড়তে পারে ১ লাখ ৩৭ হাজারের মতো। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এ বিষয়ে একটি ডিক্রি জারি করেছেন। এর মাধ্যমে সৈন্যদের নগদ অর্থের প্রণোদনাও দেওয়া হচ্ছে।

বর্তমানে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীতে নিয়মিত সৈন্য রয়েছে ১০ লাখের বেশি। বেসামরিক কর্মকর্তা রয়েছে আরও নয় লাখ।

জানা গেছে, সামরিক বাহিনীর নিয়োগদাতারা রাশিয়ার বিভিন্ন কারাগার পরিদর্শনে যাচ্ছেন। সেখানে কয়েদিদের মুক্তি ও নগদ অর্থের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হচ্ছে।

দুই সপ্তাহ আগে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, রাশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে স্বেচ্ছাসেবীদের দিয়ে বিশেষ ব্যাটালিয়ন গঠন করা হচ্ছে। এসব ব্যাটালিয়ন সামরিক বাহিনীর অংশ হবে। তবে ইউক্রেনে যুদ্ধ করতে স্বেচ্ছাসেবী ব্যাটালিয়ন গঠনের জন্য পর্যাপ্ত লোক পাওয়া যাচ্ছে না বলে দাবি করেছে যুক্তরাজ্য।

ইউক্রেনে আক্রমণের শুরুর দিকে এই লড়াই সংক্ষিপ্ত ও সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য অর্জনের জন্য বলে জানিয়েছিল রাশিয়া। কিন্তু ইউক্রেনীয়দের তীব্র প্রতিরোধের মুখে রুশ বাহিনীর সেই অগ্রগতি থমকে গেছে।

রুশ প্রেসিডেন্টের জারি করা ডিক্রিতে দেশটির সামরিক বাহিনীতে লোকবল ২০ লাখ ৩৯ হাজার ৭৫৮ জন বলা হয়েছে। এর মধ্যে ১১ লাখ ৫০ হাজার ৬২৮ জন নিয়মিত সৈন্য।

তুন নিয়োগ প্রক্রিয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেট থেকে অর্থ বরাদ্দের নির্দেশ দিয়েছেন পুতিন। ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকেই কার্যকর হবে এটি।

রাশিয়ায় বর্তমানে ১৮ থেকে ২৭ বছর বয়সী পুরুষদের সামরিক বাহিনীতে এক বছর কাজ করার জন্য যেকোনো সময় ডাকতে পারে সরকার। সেক্ষেত্রে তাদের যোগ দেওয়া বাধ্যতামূলক। তবে কারও স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি থাকলে কিংবা উচ্চশিক্ষার জন্য বাহিনীতে যোগ না দেওয়া কিংবা কাজের মেয়াদ কমিয়ে আনার নিয়ম রয়েছে।

Related Posts