সৈকতে নেমে কলেজছাত্রের মৃত্যু

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসলে নেমে ভেসে যাওয়া এক কলেজছাত্রকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করেছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

শুক্রবার (১১ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে কক্সবাজার সৈকতের কলাতলী পয়েন্ট থেকে লাইফগার্ডের সদস্যরা মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে। ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মারা যাওয়া শাহেদ হোসেন বাপ্পি (১৯) কক্সবাজারের রামু উপজেলার তেচ্ছিপুল গ্রামের শামসু আলমের ছেলে। সে রামু কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলো। কলাতলি পয়েন্টে গোসলে নেমে সে নিখোঁজ হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কয়েকবন্ধু মিলে সৈকতে এসে গোসলে নামে। এ সময় পানিতে ডুবে যায় শাহেদ। তার বন্ধুরা বিষয়টি ট্যুরিস্ট পুলিশকে জানালে দ্রুত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। তিনি আরও জানান, পরে অ্যাম্বুলেন্সে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। মরদেহ কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে রাখা হয়েছে। স্বজনরা এলে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে বলে জানান তিনি। কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (পর্যটন সেল) সৈয়দ মুরাদ ইসলাম জানান, শাহেদ হোসেন বাপ্পী ও তার আরেক বন্ধু সাগরে গোসলে নেমে স্রোতে ভেসে যায়। একজন উদ্ধার হলেও শাহেদ স্রোতে হারিয়ে যায়। পরে তাকেও উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

Related Posts