রাজশাহীতে করোনায় আরও ১০ জনের প্রাণ গেল

রাজশাহীতে করোনায় আরও ১০ জনের প্রাণ গেল

সিলেট বিভাগে নতুন রেকর্ড করোনা রোগী শনাক্ত

সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ১৪ জনই সিলেট জেলার বাসিন্দা। আর অপর ৩ জন মৌলভীবাজারের বাসিন্দা।একই সময়ে করোনা শনাক্তের সব রেকর্ড অতিক্রম করে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৮০২ জন।

যা অতীতে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড ছিলো ৭৩৬ জন। এ সময়ে চার জেলায় মিলে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিলো ১৮৩৩ টি। সে হিসেবে শনাক্তের হার ৪৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ। শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকালে সিলেট বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় এ তথ্য জানিয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বিভাগীয় কার্যালয়ের তথ্যমতে, নতুন শনাক্তদের মধ্যেও সিলেটে সর্বোচ্চ ৪১৩ জন, সুনামগঞ্জে ১২১, হবিগঞ্জে ৫১ জন, মৌলভীবাজারে ১৬৬ জন এবং সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৫১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে সিলেটে বিভাগের চার জেলায় মিলে করোনা শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ হাজার ১ শত ১৬ জন। যার সর্বোচ্চ সিলেট জেলায় ২১ হাজার ২ শত ২৫ জন, সুনামগঞ্জে ৪ হাজার ৫ শত ৭৩ জন, হবিগঞ্জে ৪ হাজার ৪ শত ৫১ জন, মৌলভীবাজারে ৫ হাজার ৩ শত ৬৪ জন এবং ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মোট ৩ হাজার ২ শত ৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সিলেট বিভাগে ভয়ানক করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৮৪ জন। যার সর্বাধিক সিলেট জেলাতেই ৫৩৮ জন, সুনামগঞ্জে ৪৯ জন, হবিগঞ্জে ৩০ জন, মৌলভীবাজারে ৫৯ জন এবং ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোট ৮ জনের প্রাণহানি হয়েছে মহামারি করোনায়। অপরদিকে শেষ ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে করোনা জয় করেছেন ৪১৩ জন। এবং নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরও ৭৬ জন। এদিকে চলমান কঠোর লকডাউনেও করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের হার ঊর্ধ্বমুখী। রোগীর চাপে বেসামাল হাসপাতালগুলো। শয্যা ও অক্সিজেন সংকটে রোগী ও স্বজনদের ভোগান্তি চরমে। এমন পরিস্থিতিতে শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকালেই দেশের বিভিন্ন স্থানে ১৭২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদিন খুলনার দুই হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দুইজন ও গাজী মেডিকেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। রাজশাহী: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে সাতজন ও উপসর্গে ছয়জন মারা গেছেন। বগুড়া: বগুড়ার তিনটি হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও ১৯ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে ১২ জন করোনায় এবং ৭ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান। সিভিল সার্জন অফিসের তথ্যমতে ২৪ ঘণ্টায় ৪৫৭টি নমুনা পরীক্ষায় ১৪৯ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। সংক্রমণের হার ২৮ শতাংশ।