সারাদেশে একাদশে সশরীরে ক্লাস শুরু

করোনা মহামারি কাটিয়ে ক্লাসে ফিরেছে উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণি শিক্ষার্থীরা। বুধবার (২ মার্চ) সকাল থেকে রাজধানীসহ সারাদেশে একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সশরীরে শ্রেণিকক্ষে উপস্থিত হতে দেখা যায়। এর মধ্য দিয়ে দেশের প্রায় ২১ লাখ শিক্ষার্থী মাধ্যমিক স্তর পেরিয়ে উচ্চ মাধ্যমিকের আঙিনায় প্রবেশ করলো।

সারাদেশে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয় গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর। পরীক্ষায় গড় পাসের হার ছিল ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে এক লাখ ৮৩ হাজার ৩৪০ জন শিক্ষার্থী এসএসসি ও সমমানে মোট ২২ লাখ ৪০ হাজার ৩৯৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেন ২০ লাখ ৯৬ হাজার ৬৪৬ জন শিক্ষার্থী। চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের কলেজে ভর্তির জন্য অনলাইনে আবেদনপ্রক্রিয়া শুরু হয় গত ৮ জানুয়ারি। এ প্রক্রিয়া চলে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। ১৯ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সম্পন্ন হয় একাদশে শিক্ষার্থীদের ভর্তি প্রক্রিয়া। এদিকে করোনা মহামারির বিরূপ পরিস্থিতি কাটিয়ে প্রায় দেড় মাস পর বুধবার (২ মার্চ) সশরীরে ক্লাসে ফিরেছে প্রাথমিক স্তরের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। তবে সংক্রমণ পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসায় এখনই খুলছে না প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়। চলমান করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ সাপেক্ষে প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত নেবে সরকার। এক্ষেত্রে আরও অন্তত দুই সপ্তাহ সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল হক। এর আগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশের সব স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু হয়েছে। ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর ওই বছরের ১৭ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। ১৮ মাস পর গত বছর সেপ্টেম্বরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও এ বছরের শুরুতে করোনার সংক্রমণ বাড়ায় গত ২১ জানুয়ারি আবারও স্কুল-কলেজ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

Related Posts