সাভারে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ

নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, দুর্নীতি ও বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সাভারে বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।  এ ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

পুলিশের দাবি- বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকে, পরে পুলিশ লাঠিপেটা করে তাদের। এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের ছোঁড়া ইট-পাটকেলের আঘাতে পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়। এ সময় পুলিশের যানবাহন ভাঙচুরের দায়ে তিনজনকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো- আশুলিয়া থানা ছাত্রদল নেতা জালাল উদ্দীন ভূইয়া (২২), জাহিদ হোসেন (৩২) ও জাকির হোসেন (৪৮)। এদের মধ্যে জাকিরের দলীয় পদবী নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।  পুলিশ জানায়, ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি সালাউদ্দিন বাবুর বাড়িতে বিএনপি নেতার্মীরা সমাবেশ করেন। এরপর মহাসড়কে বিক্ষোভের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা তাদের বাধা দেয়। এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীরা  ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশের ওপর হামলা করলে সাভার মডেল থানার এসআই কামরুজ্জামান ও একজন কনস্টেবল আহত হয়।  বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মহাসড়কে উঠতেই বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম সিনিয়র মহাসচিব রুহুল কবির রিজভি, অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরী ও ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি সালাউদ্দিন বাবু।  সাভার মডেল থানার পরিদর্শক কাজী মাইনুল ইসলাম জানান, বিএনপি নেতাকর্মীদের হামলায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হয়। তাদেরকে উদ্ধার করে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। পাশাপাশি ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে পুলিশের ওপর হামলা ও গাড়ি ভাঙচুরের দায়ে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Related Posts