সানজানার আত্মহত্যা: বাবার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন

রাজধানীর দক্ষিণখানে ১২তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সানজানা মোসাদ্দিকার (২১) আত্মহত্যার ঘটনায় করা মামলায় তার বাবা শাহীন আলমের সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) শাহীন আলমকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তার সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। ঢাকা মেট্রোপলিটন (ডিএমপি) ম্যাজিষ্ট্রেট শুভ্রা চক্রবর্তীর আদালতে এ রিমান্ড আবেদনের শুনানি হবে।

বুধবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে ময়মনসিংহের গফরগাঁও থেকে সানজানার বাবাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গত শনিবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে দক্ষিণখান মোল্লারটেক এলাকার একটি ১২তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়েন সানজানা মোসাদ্দেক। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় রাতেই সানজানার মা বাদী হয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন।

সানজানার বাবা শাহীন আলম পাঁচ বছর আগে তাদের না জানিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিষয়টি জানাজানি হলে দুই পরিবারের মধ্যে টানাপোড়েন শুরু হয়। এরপর সানজানার মা দুই মাস আগে স্বামীকে ডিভোর্স দেন। এরপর শাহীন সানজানার বিশ্ববিদ্যালয়ের সেমিস্টার ফিসহ আনুষঙ্গিক খরচ দেওয়া বন্ধ করে দেন। এদিকে, আত্মহত্যার আগে বাবাকে দায়ী করে একটি চিরকুট লিখে গেছেন ওই সানজানা। চিরকুটটি উদ্ধার করেছে দক্ষিণখান থানা-পুলিশ। চিরকুটে লেখা ছিল, আমার মৃত্যুর জন্য আমার বাবা দায়ী। একটা ঘরে পশুর সঙ্গে থাকা যায়, কিন্তু অমানুষের সঙ্গে না। একজন অত্যাচারী রেপিস্ট, যে কাজের মেয়েকেও ছাড়েননি। আমি তার করুণ ভাগ্যের সূচনা।’

Related Posts