শোডাউন দেখতে আমি এখানে আসিনি : ওবায়দুল কাদের

রাজধানীর ঢাকেশ্বরী পূজামণ্ডপে গিয়ে দলীয় নেতা–কর্মীদের উচ্ছৃঙ্খল আচরণে ক্ষুব্ধ হয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। কার কত শক্তি আছে, তা দেখানোর প্রতিযোগিতায় নামলে তাঁদের ভবিষ্যতে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হবে না বলে সতর্ক করেছেন তিনি।

আজ সোমবার সন্ধ্যায় পূজামণ্ডপে গিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনাদের শোডাউন দেখতে আমি এখানে আসিনি। সব জায়গায় করেন। আমি ঢুকতেই পারছিলাম না। যারা এই সব শোডাউন করা থেকে সংশোধন না হবে, আগামী নির্বাচনে নতুন লোককে মনোনয়ন দেব। শোডাউনের লোককে দেব না। কী করবেন? আমি তো নেত্রীকে রিপোর্ট করব, কী কী হচ্ছে এখানে।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি এখানে এসেছেন হিন্দুধর্মাবলম্বীদের শারদীয় শুভেচ্ছা জানাতে। কারও লাল গোলাপ শুভেচ্ছা নিতে আসেননি। ক্ষুব্ধ কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘এই দুর্গাপূজার মধ্যেও লালবাগের গ্রুপ পলিটিকস আপনারা ঢোকালেন কেন?’

তিযোগিতায় নামলে তাঁদের ভবিষ্যতে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হবে না বলে সতর্ক করেছেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘হিন্দুরা এখানে পূজা করতে আসছে, অনেক মা-বোনেরা আসছে, এদের সামনে আপনারা এখানে মল্লযুদ্ধ দেখাচ্ছেন? কার কত শক্তি জেনারেল সেক্রেটারিকে দেখাতে এসেছেন? আমি এগুলো দেখতে চাই না। সবার এসিআর জমা আছে। কাজেই শোডাউন দেখাইয়া ফায়দা লুটবেন, এটা মনে করার কোনো কারণ নেই।’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ইঙ্গিত করে ওবায়দুল কাদের বলেন, পূজা দেখতে এসে এক নেতা হম্বিতম্বি করে গেছেন। আইনের শাসনের গল্প বলেছেন। যাঁরা ক্ষমতায় থাকতে আইনের শাসনকে পদদলিত করেছিলেন। রক্তাক্ত করেছেন গণতন্ত্রকে। তাঁরাই এখন গণতন্ত্র আর আইনের শাসনের কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে যারা বিতর্কিত করেছে ২০০১ সালে, তারাই এখন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কথা বলে। কিন্তু গলিত লাশ তত্ত্বাবধায়ক আর ফিরে

Related Posts