রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবি, ৫ যুবক গ্রেপ্তার

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবি, ৫ যুবক গ্রেপ্তার

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থীকে অপহরণের পর ৪০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে ৫ যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) রাত ১০টায় হড়গ্রাম কোর্ট স্টেশন মোড়ের জামিল চত্ত্বর এলাকার একটি বাসা থেকে শিক্ষার্থীকে উদ্ধারসহ তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

উদ্ধার রাবি শিক্ষার্থী রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী থানার চান্দলাই গ্রামের মৃত অসীম কুমার বর্মনের ছেলে রাতুল কুমার বর্মন। তিনি রাবির চারুকলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।  গ্রেপ্তার ৫ যুবক হলেন, সরকার উদয় (১৯), মো. দাউদ ইব্রাহিম সাফি (২২), মো. পলাশ কবির (২৬), প্রবীন পাল রুদ্র (২০) এবং ওয়াহিদুর রহমান নুর (২০)।

ঘটনার দিন রাত ৯ টায় রাতুলের মোবাইল ফোন হতে তার মায়ের ফোনে কল করে নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে ৪০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন তারা। এসময় রাতুলের মা বিকাশের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা পাঠান। কিন্তু মুক্তিপণের বাকি টাকার জন্য রাতুলকে তারা শারীরিকভাবে নির্যাতন করতে থাকেন।

একপর্যায়ে রাতুল অপহরণকারীদের সঙ্গে ধ্বস্তাধস্তি করে কক্ষের বাইরে এসে চিৎকার শুরু করেন। কিন্তু অপহরণকারীরা রাতুলকে আবার ধরে ফেলে এবং ঘরে নিয়ে আটকে রেখে মারধর করতে থাকেন। পরবর্তীতে সেখানে অভিযান চালিয়ে ৫ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করে এবং রাতুলকে উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মশিউর রহমান বলেন, জড়িত ৫ অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাতুলকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার পর জেল হাজতে পাঠানো হ