শপথ নিলেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রথম ইউপি চেয়ারম্যান

শপথ নিলেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রথম ইউপি চেয়ারম্যান

শপথ নিলেন দেশের প্রথম নির্বাচিত তৃতীয় লিঙ্গের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ঋতু। তিনি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সভাকক্ষে জেলার কালীগঞ্জ ও কোটচাঁদপুর উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানদের শপথপাঠ অনুষ্ঠিত হয়। শপথ পাঠ করান জেলা প্রশাসক মুজিবর রহমান। সেখানে শপথ নেন নজরুল ইসলাম ঋতু। গত বছরের ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ঝিনাইদহের ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নজরুল ইসলাম ছানাকপরাজিত করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম ঋতু। ঋতু ৯৫৫৭ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নৌকা প্রতীকের নজরুল ইসলাম ছানা পান ৪৫২৯ ভোট। শপথ নেওয়ার পর নজরুল ইসলাম ঋতু বলেন, ‘চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে আমার দ্বায়িত্ব বেড়ে গেছে। মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) আমি ইউনিয়ন পরিষদে যাবো। সেখানে এলাকার মুরব্বি ও সুধীজনদের ডাকবো। তাদের পরামর্শে আগামী দিনগুলোতে ইউনিয়নবাসীর সেবা দেওয়ার চেষ্টা করবো।’ চেয়ারম্যান ঋতু উপজেলার ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের দাদপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের সন্তান। জন্মের পর তৃতীয় লিঙ্গের বৈশিষ্ট্য প্রকাশ পাওয়ায় সাত বছর বয়সে তাকে গ্রাম ছেড়ে ঢাকা চলে যেতে হয়। ছোটবেলা থেকেই ঢাকার ডেমরা থানায় তার দলের গুরুমার কাছেই বেড়ে ওঠেন। এখন তার (গুরুমা) বয়স ৪৩ বছর। গুরুমার পরের দ্বায়িত্বটা দেখভাল করেন ঋতু। ঢাকায় থাকলেও পরিবারের টানে প্রায়ই বাড়িতে আসেন তৃতীয় লিঙ্গের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ঋতু। তার কষ্টার্জিত জমানো অর্থ দিয়ে গত ১৫ বছর ধরে জন্মস্থান দাদপুর গ্রামসহ ইউনিয়নবাসীর উন্নয়নে সহযোগিতা করে আসছেন। ভোটাররা কেন আপনাকে ভোট দিয়েছে, এমন প্রশ্নে ঋতু বলেন, ‘সেটা বলতে পারবো না। তবে গত ১৫ বছর ধরে আমি জনগণের মাঝে আছি। তাদের আমি ভালোবেসেছি, তারাও আমাকে ভালোবাসেন। সে কারণেই হয়তো ভোট দিয়েছেন।’ তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের নিয়ে দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন হয়েছে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সমাজে আমরা অবহেলার পাত্র, সবাই ঘৃণার চোখে দেখে। কিন্তু আজ সেই অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। মানুষ তাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী আমাদের স্বীকৃতি দিয়েছেন, এটা অনেক বড় পাওয়া। এখন আমার লক্ষ্য, সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়া।’

অনলাইন ডেস্ক