করোনা শনাক্ত কমলেও বেড়েছে মৃত্যু

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আরো ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট প্রাণহানি হলো ২৮ হাজার ৯৯০ জনের। ৮৭৪ টি ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ২৩ হাজার ৫৪৭ নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৫৯৫ জনের। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৬ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯ লাখ ৩৬ হাজার ৮৩৭ জনে। সুস্থ হয়েছেন আরো ৮ হাজার ৩৫৭ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ ১৭ লাখ ৭১ হাজার ৬১৫ জন। এর আগে গতকাল ৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল। আর করোনা শনাক্ত হয়েছিল ১ হাজার ৯৫১ জনের। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ছিলো ৬ দশমিক নয়-চার শতাং। সেদিক বিবেচনায় আজ মৃত্যু বাড়লেও শনাক্তের হার কমেছে। এর আগে, গত ২৫ জানুয়ারি ১৬ হাজার ৬৬ জন রোগী শনাক্তের খবর এসেছিল, যা মহামারির মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

১৮ জানুয়ারি প্রায় ৬ মাস পর শনাক্তের হার ৩১ শতাংশ ছাড়ায়। যদিও গত ২৫ জানুয়ারি থেকে শনাক্তের হার কিছুটা কমে ৩০ শতাংশের নিচে নামে। ওমিক্রন আতঙ্ক কিছুটা কাটিয়ে দেশে কয়েক দিন ধরে শনাক্তের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। এর আগে, ওমিক্রন আতঙ্কের শুরুর দিকে দেশে কয়েক সপ্তাহ ধরে শনাক্তের সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছিলো। তাই সংক্রমণ ঠেকাতে বেশকিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছিলে সরকার। তবে ধীরে ধীরে সেসব বিধিনিষেধ তুলে নেয়ার চিন্তা করছে সরকার। ইতিমধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ঘোষণাও দেয়া হয়েছে। গত বছরের মাঝামাঝি করোনার ডেলটা ধরনের দাপটে দেশে করোনায় মৃত্যু, রোগী শনাক্ত ও শনাক্তের হার বেড়েছিল। তবে আগস্টে দেশব্যাপী করোনার গণটিকা দেয়ার পর সংক্রমণ কমতে থাকে। গত বছরের ১১ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো দেশে করোনা ভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ শনাক্তের খবর আসে।

Related Posts