চালু হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে লোকাল ট্রেন

করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে রেল চলাচল বন্ধ করে দেয় ভারত। পশ্চিমবঙ্গেও সেসময় রেল চলাচল বন্ধ করা হয়। অবশেষে দীর্ঘ পাঁচ মাস পরে আগামী রোববার (৩১ অক্টোবর) থেকে পশ্চিমবঙ্গে চালু হচ্ছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। তবে আপাতত ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলবে ট্রেন।

শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের সচিবালয় ‘নবান্ন’ থেকে জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার। এর আগে গত মে মাসে করোনা সংক্রমণ ব্যাপক আকার ধারণ করে। তার ফলে রাজ্যের তরফে লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধ হয়ে যায়। তাতে বিপাকে পড়েন হাজার হাজার অফিসযাত্রী। ক্ষুব্ধ হয়ে কয়েকবার অবরোধ-বিক্ষোভে শামিল হন বহু মানুষ। তা সত্ত্বেও বারবারই নবান্নের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়ে কোনোভাবেই লোকাল ট্রেন চালানো সম্ভব নয়। সেই সময় রাজ্যের তরফে বলা হয়, লোকাল ট্রেন চালু হলে আরও বাড়তে পারে। তবে অবশেষে নিষেধাজ্ঞা তুলেছে নবান্ন। শনিবার পশ্চিমবঙ্গের চার আসনের উপনির্বাচন। আর তার পরের দিন থেকেই লোকাল ট্রেন চলবে স্বাভাবিক নিয়মে। তবে গত বৃহস্পতিবার থেকে লোকাল ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে মুম্বাইয়ে। করোনা পরিস্থিতির আগের অবস্থায় লোকাল ট্রেন পরিষেবা নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মধ্য এবং পশ্চিম রেল। পশ্চিমবঙ্গে লোকাল ট্রেনে প্রতিদিন লাখ লাখ মানুষ হাওড়া ও শিয়ালদহ শাখা দিয়ে যাতায়াত করেন। পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গেও তারা লোকাল ট্রেন চালানোর জন্য তৈরিই ছিল। এখন রাজ্য সরকার বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ায় লোকাল ট্রেন পরিষেবা স্বাভাবিক করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। এ প্রসঙ্গে পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ কর্মকর্তা একলব্য চক্রবর্তী বলেন, গত মে মাস থেকে রাজ্য সরকারের নির্দেশেই লোকাল ট্রেন চলাচলে নিয়ন্ত্রণ রয়েছে। রাজ্য সরকারের অনুমতি মেলায় এখন রোববার থেকে তা চালু হবে।