রাস্তায় জমা পানি পান ফিলিস্তিনি শিশুর

রাস্তায় জমা পানি পান ফিলিস্তিনি শিশুর

ইসরায়েলি সেনাদের হামলায় ধ্বংসপুরীতে পরিণত হয়েছে গাজা উপত্যকা। বাস্তচ্যুত মানুষের ভিড়ে এ উপত্যকায় প্রকট আকার ধারণ করছে মানবিক সংকট। এমন পরিস্থিতিতে চারদিকে খাবারের জন্য হাহাকার শুরু হয়েছে।

সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজায় পানি সংকটও ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। এমন পরিস্থিতিতে সেখানকার রাস্তায় জমে থাকা পানি পান করছে শিশুরা। এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। সেখানে গাজার এক শিশুকে রাস্তায় জমে থাকা পানি পান করতে দেখা গেছে।

এর আগে গত মাসে জাতিসংঘ জানায়, বিশ্বের ক্ষুধার্ত মানুষের ৮০ শতাংশই গাজার বাসিন্দা। দেশটির উপকূলীয় অঞ্চলে ২৩ লাখ মানুষের বসবাস রয়েছে। যারা দুর্ভিক্ষ ও বিপর্যয়কর ক্ষুধার মুখোমুখি অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে।

জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গাজার প্রত্যেক মানুষই এখন ক্ষুধার্ত। তাদের মধ্যে চার ভাগের একভাগ মানুষ অনাহারে রয়েছেন।

বিশেষজ্ঞরা আরও জানান, সেখানে পাঁচ বছরের নিচে তিন লাখ ৩৫ হাজার শিশু রয়েছে, যারা অপুষ্টিতে ভুগছে। উপত্যাকাজুড়ে ক্ষুধার্তদের সংখ্যা বাড়তে থাকায় সেখানে পুরো একটি জেনারেশন অপুষ্টির ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে।

বিভিন্ন মানবিক সংস্থা গাজায় সুপেয় পানি ও স্যানিটেশন সমস্যা নিয়ে বারবার উদ্বেগ জানিয়েছে। ইসরায়েলি হামলার কারণে সেখানকার অপুষ্টিতে ভোগা হাজার হাজার মানুষের মধ্যে বিভিন্ন রোগব্যাধি ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।