রাসিক মেয়রের গাড়িতে বোমা হামলাকারীর মুক্তি দাবীতে সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের গাড়িতে বোমা হামলাকারিকে বাঁচাতে ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছেন মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আনোয়ার হোসেন। গত ২৭ সেপ্টেম্বর (সোমবার) দুপুরে নগরীর সোনাদিঘী মোড়ে সড়কে রাজশাহী মহানগর প্রেসক্লাব ও রাজশাহী রিপোর্টার্স ইউনিটির (আরআরইউ) যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে আলোচিত জামায়াত বিএনপি পন্থী সাংবাদিকদের সাথে ব্যানারে দাড়িয়ে মেয়রের গাড়ী বহরে হামলাকারি সেই কতিথ সাংবাদিক রাব্বানীর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি জানান রাজশাহী মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন।
জানা যায়, জামায়াত বিএনপির সক্রিয় ক্যাডার মাসুদ রানা রাব্বানীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে মানববন্ধনে দাঁড়ান রাজশাহী মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন। এ নিয়ে মহানগর আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অন্যান অংগ সংগঠনের নেতা কর্মিদের মাঝে সমালোচনা, বিরূপ প্রতিক্রিয়া ও চাপা ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, রাজশাহীতে জামায়াত বিএনপির সক্রিয় ক্যাডার, ২০০২ সালে মতিহার থানাধিন তালাইমারি মোড়ে রাসিক মেয়রের গাড়িতে বোমাহামলা করে চাঁদাবাজ,মাদক ও রাষ্ট্রদ্রোহী মামলাসহ প্রায় ডজন খানেক মামলার আসামী তালাইমারী অকট্রয় মোর এলাকার কথিত সাংবাদিক সন্ত্রাসী মাসুদ রানা রাব্বানী। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে নানা গুনজন থাকলেও অবশেষে ২৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবে অস্ত্রনিয়ে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার করে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। এরপর থেকে তাকে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে কাজ করছে সেচ্ছাসেবক লীগ নেত আনোয়ার। এবিষয়ে মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিনের সাথে কথা বললে তিনি জানান, এমন তো হওয়ার কথা নয়। রাজশাহী আওয়ামী লীগের প্রান আমাদের সকলের মধ্যমনির গাড়ি বহরে বোমা হামলাকারিকে বাঁচাতে আমাদের সংগঠনের লোক কাজ করবে এটা হতে পারেনা। এমন বিষয় আমার জানা নাই, জানলাম, আমি নিষেধ করবো।
পরে বিষয়টি নিয়ে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এর মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সাথে কথা বললে, রাব্বানীকে বাঁচাতে কে কাজ করছে জানতে চান এবং বলেন, আমার জানা ছিলনা। আমি খোঁজ খবর নিয়ে অবশ্যই ব্যবস্থা নিব।

Related Posts