রাবি শিক্ষার্থী রিক্তা হত্যা মামলা: স্বামী ৩ দিনের রিমান্ডে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আইন বিভাগের শিক্ষার্থী রিক্তা আক্তার হত্যা মামলার প্রধান আসামি স্বামী আব্দুল্লাহ ইশতিয়াককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় এই তথ্য নিশ্চিত করেন নগরীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিন।

ওসি বলেন, ‘মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে আমরা আদালতের কাছে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করি। আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।’ এর আগে গত শুক্রবার (২৯ জুলাই) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে রাজশাহী নগরীর ধরমপুরের একটি ভাড়া বাসা থেকে রিক্তা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। রিক্তার স্বামী ইশতিয়াকের দাবি, রিক্তা আত্মহত্যা করেছেন। অপরদিকে পরিবার ও বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দাবি, এটা স্বামী ইশতিয়াকের পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। ঘটনার পরপর ইশতিয়াককে পুলিশ আটক করে। পরে আদালতের মাধ্যমে গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে জেলখানায় পাঠানো হয়।

রিক্তা বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ার কুমারখালীর জোতপাড়া গ্রামে। তার স্বামী ইশতিয়াক একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

নিহত শিক্ষার্থীর সহপাঠীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দু-বছর আগে তাদের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। কলেজজীবন থেকেই তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। তারা দুজনই ব্যাচমেট। এক বছর ধরে তারা দুজন বাসা ভাড়া করে একসঙ্গে থাকছেন। কয়েক দিন ধরে তাদের মধ্যে একটু ঝামেলা চলছিল। সবশেষ এ ঘটনা ঘটে।
 এতে রিক্তার বাবা বাদী হয়ে নগরীর মতিহার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে ক্যাম্পাসে মানববন্ধনও করেছেন আইন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। 

Related Posts