রামেকে আরও ১১ জনের মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (১৪ অগাস্ট) সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত অর্থাৎ গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে মারা গেছে মোট ১১ জন। এর মধ্যে সংক্রমণে নয়জন ও উপসর্গে দুইজন মারা গেছেন। এছাড়া মৃতদের মধ্যে আটজন পুরুষ ও তিনজন নারী ছিলেন। মৃতদের অধিকাংশের বয়স ৩১-৬৫ বছরের ওপরে ছিল। মৃতদের পরিবারকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, মৃত ১১ জনের মধ্যে রাজশাহীর চারজন, নাটোরের চারজন, নওগাঁর দুইজন ও কুষ্টিয়ার একজন ছিলেন।

সংক্রমণ ও উপসর্গে মৃত্যুর বিষয়ে তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে রাজশাহীর তিনজন, নাটোরের চারজন, নওগাঁর একজন ও কুষ্টিয়ার একজন করোনা সংক্রমণে মারা গেছেন। অন্যদিকে, রাজশাহীর একজন ও নওগাঁর একজন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। এদিকে নতুন রোগী ভর্তি ও সংক্রমণের বিষয়ে রামেক পরিচালক বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে নতুন ভর্তি হয়েছেন ২৬ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৪ জন। রামেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৭৯ জন এবং সন্দেহভাজন ও উপসর্গ নিয়ে ১৫১ জন ভর্তি রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে ৫১৩টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি ছিলেন ৩৩০ জন। রামেকের দুই ল্যাবে করোনা পরীক্ষা ও শনাক্তের বিষয়ে পরিচালক জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালের পিসিআর মেশিনে ৫৩টি নমুনা পরীক্ষায় ১৮ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। অন্যদিকে, মেডিকেল কলেজের পিসিআর মেশিনে ৩৫০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৪১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। দুই ল্যাবের টেস্টে মোট ৪০৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ৯৪ জনের করোনা পজিটিভ রেজাল্ট আসে। পরীক্ষা বিবেচনায় রাজশাহীতে শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৫২ শতাংশ।

Related Posts