ভর্তি পরীক্ষার এক সপ্তাহ আগেই বেশির ভাগ হোটেলে সিট নেই

ভর্তি পরীক্ষার এক সপ্তাহ আগেই বেশির ভাগ হোটেলে সিট নেই

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন শিক্ষাবর্ষে স্নাতক শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ২৯ মে, যা চলবে ৩১ মে পর্যন্ত। এ উপলক্ষে ভর্তি–ইচ্ছুক শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ নতুন করে তিন লাখের বেশি মানুষের সমাগম হতে পারে রাজশাহীতে। ইতিমধ্যেই নগরের বেশির ভাগ হোটেল-মোটেলের কক্ষ বুকিং হয়ে গেছে। যেগুলো ফাঁকা আছে, সেগুলোতে ভাড়া চাওয়া হচ্ছে বেশি। এর ফলে অনেকেই রাজশাহীতে বাস করা স্বজন, বিশ্ববিদ্যালয়ের হল ও আশপাশের মেসে থাকা শিক্ষার্থীদের কাছে জায়গা খুঁজে নিচ্ছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সিরাজুল ইসলামের গ্রামের বাড়ি থেকে তিনজন আত্মীয় এবারের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে রাজশাহীতে আসবেন। তাঁদের থাকার জন্য দুই দিন ধরে জায়গা খুঁজছেন তিনি। শেষ পর্যন্ত একটি হোটেলে কক্ষ পেলেও সেটি সাধ্যের বাইরে হওয়ায় তিনি বুকিং দেননি। তিনি বলেন, ‘২৯ মে তিনজন পরীক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষা দিতে রাজশাহী আসবে। তিন সিটের একটি কক্ষে এক রাত থাকার জন্য হোটেল কর্তৃপক্ষ ২ হাজার ৪০০ টাকা চেয়েছে। এক রাতের জন্য এত টাকা দেওয়া আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তাই বাধ্য হয়ে ছাত্রীনিবাসে তাদের রাখার চেষ্টা করছি।’

রাজশাহী মহানগরের মেস মালিক সমিতির সভাপতি মো. এনায়েতুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, যাঁরা মেসে থাকেন, তাঁরা একজন করে ভর্তি-ইচ্ছুক পরীক্ষার্থীকে বিনা মূল্যে রাখতে পারবেন। এ ছাড়া যদি অভিভাবক থাকেন, তাহলে ২০০ থেকে ৫০০ টাকা দিতে হবে। এবার ভর্তি পরীক্ষার সময় আবাসিক হলগুলো খোলা আছে। সেখানে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা থাকতে পারবেন। যতটুকুই আবাসন রয়েছে, তার সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে পারলে, এই সংকট অনেকটা নিরসন করা সম্ভব হবে।

সুলতান-উল-ইসলাম, সহ-উপাচার্য, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য সুলতান-উল-ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘বিপুলসংখ্যক লোকজনের আগমনের তুলনায় রাজশাহীতে যথেষ্ট আবাসনসংকট রয়েছে। আমরা হোটেল ও মেস মালিক সমিতির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি, যাতে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা হয়রানির শিকার না হন। তা ছাড়া এবার ভর্তি পরীক্ষার সময় আবাসিক হলগুলো খোলা আছে। সেখানে পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা থাকতে পারবেন। যতটুকুই আবাসন রয়েছে, তার সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে পারলে, এই সংকট অনেকটা নিরসন করা সম্ভব হবে।’

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে শিক্ষার্থী ও তাঁদের অভিভাবকদের যাতায়াতের সুবিধার্থে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাঁচটি ট্রেনে অতিরিক্ত কোচ সংযুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী রেলপথে চলাচলকারী সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনের ২৮ মের এবং রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী রেলপথের পদ্মা এক্সপ্রেস ও খুলনা-রাজশাহী-খুলনা রুটের কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনের ৩০ মের সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এবার ভর্তি পরীক্ষায় ৩ হাজার ৯৩০টি আসনের বিপরীতে ১ লাখ ৭৮ হাজার ৫৭৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবেন। এর মধ্যে এ ইউনিটে ৭২ হাজার ৫০ জন, বি ইউনিটে ৩০ হাজার ৬৭৪ জন এবং সি ইউনিটে ৭৫ হাজার ৮৫০ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবেন।

২৯ মে সি ইউনিট (বিজ্ঞান), ৩০ মে এ ইউনিট (মানবিক) এবং ৩১ মে বি (ব্যবসায় শিক্ষা) ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি ইউনিটের পরীক্ষা প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে ১০টা, বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১২টা, বেলা ১টা থেকে ২টা এবং বেলা সাড়ে ৩টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ৪ পালায় অনুষ্ঠিত হবে।

ভর্তি–জালিয়াতি হলে সরাসরি মামলা

গত বছর ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে অন্যের হয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীসহ চারজন এবং একজন পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়। তাঁদের মধ্যে চারজনকে এক বছরের জন্য কারাগারে পাঠান ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ঘটনায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বায়জিদ খানকে প্রক্টরের দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। বায়জিদ তখন বলেন যে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুশফিক তাহমিদের নির্দেশে তিনি ভর্তি পরীক্ষায় ‘প্রক্সি’ দেন। এ ঘটনায় মুশফিক তাহমিদকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। এ ছাড়া জালিয়াতি করে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হওয়ার অভিযোগে চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল ছয় শিক্ষার্থীসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ভর্তি–জালিয়াতি রোধে গত বছরের মতো এবারও ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবেন। এবার কেউ জালিয়াতিতে জড়িত থাকলে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সরাসরি মামলা করা হবে। এ ছাড়া পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের নির্বিঘ্নে চলাচলের জন্য ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *