রাজশাহীর চন্দ্রিমায় বাঁশ কেটে জমি দখলের চেষ্টা

রাজশাহীর চন্দ্রিমা থানাধীন কালচিকা গ্রামে গতকাল ৯.৩০ মি. দিকে পূর্ব শক্রতার জের ধরে বাঁশ বাগানের প্রায় ১০০০/- বাঁশ কেটে ফেলে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। যার আনুমানিক মূল্য ২০০০০০/-( দুই লক্ষ টাকা)। এলাকাবাসীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।
জমির মালিক মৃত আজিজুল হক এর পুত্র এ্যাড: মো: সাদেকুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন: গত কাল ৯.৩০ মি. আমার পিতার ক্রয়কৃত সম্পত্তি যার খতিয়ান নম্বর-৬৫, দাগ-২২৬, মৌজা- বালানগর, যাহার সম্পত্তির পরিমাণ .৪৩ একরের একটি বাঁশ বাগান। সন্ত্রাসীরা জোর পূর্বক গত ২১/৬/২২ তারিখে সকাল ৯.৩০ মি বাঁশ বাগানে ঢুকে বাঁশ কাটতে থাকে। আমার প্রতিবেশী ভাইয়েরা আমাকে খবর দিলে আমি ঘটনা স্থলে যেয়ে বাঁশ কাটতে নিষেধ করলে তারা আমাকে প্রাণনাশের গুমকি দেয়াসহ ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। তিনি বলেন: আমার পিতার নিকট তারা কালাচিকা গ্রামের ২২৬ দাগের .৪৩ একর জায়গা ০১/০৭/১৯৮১ সালে বিক্রয় করে এবং বর্তমানে আমাদের ভোগ দখলে আছে।
এর আগে গত ১৮/০৬/২২ ইং তারিখ, রোজ- শনিবার ১১.৩০ মি ঘটিকার সময় আমাদের স্বত্ব দখলীয় সম্পত্তিতে এসে দলবল নিয়ে অবৈধ ভাবে বাঁশ কাটে ও সম্পত্তি দখলের চেষ্টা করে। এরপর আমি বাধা প্রদান করলে তারা আমাকে মেরে ফেলার ও গুম করার গুমকি প্রদান করে। পরে প্রতিবেশীদের বাধার মুখে তারা ফিরে যায় এবং সুযোগ পেলে জমি দখল করে বাঁশ কেটে নিয়ে যাবার হুমকি দেয়।
তারি ধারাবাহিকতায় তারা ২১/০৬/২২ তারিখে সন্ত্রাসী ভাড়া করে তারা জমি দখল করে বাঁশ কাটা শুরু করে বলে তিনি জানান।
এই ঘটনায় ভুক্তভুগিরা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে কোর্টে ও থানায় ২টি মামলা দায়ের করেছেন এবং প্রশাসনের কাছে আহব্বান জানিয়েছেন- তারা যেন এই সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে সুষ্ঠ বিচারের মাধ্যমে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

Related Posts