রাজশাহীতে ২ দিন জনসংযোগ:কোটা সংস্কার আন্দোলন

রাজশাহীতে ২ দিন জনসংযোগ:কোটা সংস্কার আন্দোলন

সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতির সংস্কারের দাবিতে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে একসঙ্গে নিয়ে রাজশাহীতে শক্তিশালী আন্দোলন গড়ে তোলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে। এ জন্য আগামী শুক্রবার ও শনিবার জনসংযোগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কোটা পদ্ধতি সংস্কার আন্দোলন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সমন্বয়করা।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন মার্কেটের আমতলায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি জানান তারা।

সম্মেলনে কোটা পদ্ধতি সংস্কার আন্দোলনের রাবির অন্যতম সমন্বয়ক আশিকুল্লাহ মুহিব বলেন, ‘আমরা ঢাকার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলে আগামী ছুটির দুদিন জনসংযোগ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই দুদিন আমাদের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করে সারা দেশের সঙ্গে সমন্বয় করে দেশের সব প্রতিষ্ঠানে একই দিনে একই ধরনের কর্মসূচি রাখবো। আজ ও আগামী দুদিন নিবন্ধন পরীক্ষায় আমাদের ছাত্রছাত্রীদের যাতে ব্যাঘাত না ঘটে, কেউ যেন আমাদের আন্দোলনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে না পারে, সেজন্য আমরা এসব সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

পরবর্তী কর্মসূচির বিষয়ে আরেক সমন্বয়ক রেজওয়ান গাজি মহারাজ বলেন, ‘আমরা আমাদের আন্দোলনকে শক্তিশালী করতে আগামীকাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সব সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করবো। আমরা প্রতিটি ডিপার্টমেন্টের বর্ষভিত্তিক ক্লাস প্রতিনিধি ও হল প্রতিনিধি ঘোষণা করবো। সামাজিক সংগঠন ও তাদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বসে কীভাবে আন্দোলনকে শক্তিশালী করা যায়, সে বিষয়ে ভেবে পরবর্তী কর্মসূচি দেবো।’

আরেক সমন্বয়ক আমানুল্লাহ খান বলেন, ‘যতদিন পর্যন্ত আমাদের দাবি আদায় না হচ্ছে, ততদিন আমরা রাজশাহীর অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সারা দেশের সঙ্গে সমন্বয় করে কর্মসূচি দেবো। যাতে রাজশাহীতে আমরা একসঙ্গে কর্মসূচিগুলো পালন করতে পারি। নির্বাহী বিভাগের কাছ থেকে নতুন পরিপত্রের মাধ্যমে জটিলতা নিরসন না করা পর্যন্ত আমরা থামছি না, আমাদের আন্দোলন চলবে।’

এ সময় কোটা পদ্ধতি সংস্কার আন্দোলন রাবির অন্যতম সমন্বয়ক মেহেদী সজীব, রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের প্রতিনিধি সাফায়েত এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন করে প্রতিনিধিসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।