রাজশাহীতে হাসপাতাল থেকে দুদিন বয়সী নবজাতককে চুরি

রাজশাহীতে হাসপাতাল থেকে দুদিন বয়সী নবজাতককে চুরি
রাজশাহীতে হাসপাতাল থেকে দুদিন বয়সী নবজাতককে চুরি করে নিয়ে যাওয়ায় এক দম্পতিকে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া দুজনকেই ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।
বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহীর মানবপাচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আয়েজ উদ্দিন এ মামলার রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নগরীর তালাইমারী পানির ট্যাংকি এলাকার বাসিন্দা সজিব আহমেদ (২৯) এবং তার স্ত্রী মৌসুমী বেগম (২৬)। আদালত মৌসুমীকে ১০ বছর এবং সজিবকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন। রায় ঘোষণার সময় নিঃসন্তান এই দম্পতি আদালতের কাঠগড়ায় হাজির ছিলেন। পরে তাদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী শফিকুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ২০২১ সালের ২০ জানুয়ারি প্রসব বেদনা নিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি হন স্মৃতি রাণী নামের এক নারী। তিনি নগরীর আইডি বাগানপাড়া এলাকার বাসিন্দা। হাসপাতালে ভর্তির পর রাতেই সিজারিয়ান অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি। এরপর তিনি হাসপাতালের ২১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন। পরদিন ২১ জানুয়ারি সকালে মৌসুমী গিয়ে শিশুটিকে আদর করেন। পরের দিন ২২ জানুয়ারি সকালে তিনি আবার যান। তখন বাচ্চাকে বুকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন স্মৃতি রাণী। এই ফাঁকে মৌসুমী তার সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যান। পরে নবজাতক চুরির বিষয়টি জানাজানি হলে হুলস্থূল শুরু হয়। এর ২৭ ঘণ্টা পর বাচ্চাটিকে মৌসুমীর কাছ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।
আইনজীবী শফিকুল ইসলাম আরও জানান, নবজাতক উদ্ধারের পর স্মৃতি রাণীর স্বামী মাসুম রবিদাস বাদী হয়ে নগরীর রাজপাড়া থানায় মানবপাচার আইনে এ দম্পতির বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বুধবার এ মামলার রায় ঘোষণা করা হলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *