রাজশাহীতে উৎসব মুখর পরিবেশে জেলা পরিষদের ভোট গ্রহণ শুরু

রাজশাহীতে উৎসব মুখর পরিবেশে জেলা পরিষদের ভোট গ্রহণ শুরু

রাজশাহীতে উৎসব মুখর পরিবেশে শুরু হয়েছে জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। নির্ধারিত সময় সকাল ৯ টা থেকে এই ভোট গ্রহণ শুরু হয়। টানা দুপুর ২টা পর্যন্ত ইলেকট্রনিক ভোট মেশিন-ইভিএমে ভোট নেওয়া হবে।

জেলা রিটানিং অফিসারের দপ্তর থেকে সরাসরি মনিটরিংয়ের জন্য প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে সিসিটিভি স্থাপন করা হয়েছে।

সকাল থেকেই দেখা গেছে রাজশাহী জেলার ৯ টি উপজেলার ভোট কেন্দ্রগুলোতে নির্বাচন গ্রহণের সাথে জড়িত সকল কর্মকতা, আইন শৃংখলা বাহিনীসহ সংশ্লিষ্ঠ সকলেই এই ভোট গ্রহনে তাদের দায়িত্ব পালন করছে।

ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি বেশ লক্ষ্য করা গেছে। জেলার পুর্ঠিয়া উপজেলার ভোটকেন্দ্র নারী-পুরষ ভোটররা সকাল সকাল উপস্থিত হয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিতে দেখা গেছে।

ভোট কেন্দ্রে ও বাইরে নির্বাচনের উৎসব মুখর আমেজ লক্ষ করা গেছে। আপন আপন প্রার্থীদের সমর্থকরা ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে প্রচারণা চালাতে দেখা গেছে। গণমাধ্যম কর্মীদেরও তাদের দায়িত্ব পালন করতে সকাল সকাল ভোট কেন্দ্রে উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

তবে কোথাও কোথাও নির্ধারিত সময়ের ১০-১৫ মিনিট ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে।

এই বিষয়ে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল বলেন, নির্ধারিত সময়ে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। আমি আমার অফিস থেকে সকল কেন্দ্রের ভোট সিসি ক্যামেরায় পর্যবেক্ষণ করছি। এখন পর্যন্ত সুষ্ঠ ভাবে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। সুষ্ঠ ভাবে ভোট গ্রহণের জন্য সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। কয়েকটি কেন্দ্রে দেরীতে ভোট গ্রহণ শুরুর বিষয়ে তিনি বলেন, দেরীতে ভোট গ্রহণ শুরু হয়নি। ইভিএম মেশিন চালু করতে ডিভাইসে ১০-১৫ মিনিট সময় লেগেছে। আশা করা যায় ভোট গ্রহণ সুন্দর ভাবেই শেষ হবে।

জানা গেছে, রাজশাহীর নয়টি ভোট কেন্দ্রের ১৮টি বুথে সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শেষে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

যেকোনো সহিংসতা এড়াতে মাঠে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রয়েছে। মনিটরিং করতে কেন্দ্রে কেন্দ্রে বসানো হয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা। সাথে ৪টি জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালত মাঠে থাকবে। সেইসাথে ৯টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজ নিজ উপজেলায় ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব পালন করবেন।

একজন চেয়ারম্যান, তিনটি সংরক্ষিত নারী সদস্য ও নয়টি সাধারণ সদস্য পদের বিপরিতে রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৫১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। যাদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৭ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩০ জন।

চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও দলীয় মনোনিত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আখতারুজ্জামান আখতার, বীর মুক্তিযোদ্ধ আনোয়ার ইকবাল ও আফজাল হোসেন।

রাজশাহী জেলা পরিষদ নির্বাচনে মোট ভোটার ১ হাজার ১৮৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৯০৬ জন ও নারী ভোটার ২৭৯ জন।

রাজশাহীর নয়টি ওয়ার্ডের মধ্যে সবচেয়ে বেশী ভোটার বাগমারায় ২৩৭ জন। এছাড়াও গোদাগাড়ীতে ভোটার সংখ্যা ১৪৬ জন, তানোরে ১২০ জন, পবা উপজেলায় ও সিটি করপোরেশনে ১৭৪ জন, মোহনপুরে ৯৪ জন, দুর্গাপুরে ১০৬ জন, পুঠিয়ায় ৯৪ জন, চারঘাটে ৯৪ জন ও বাঘা উপজেলায় ১২০ জন ভোটার।

Related Posts