রাজশাহীতে অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ৪

রাজশাহীতে অটোরিকশায় ট্রাকের ধাক্কা, নিহত ৪

রাজশাহীতে ট্রাকের চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী দুই নারীসহ চারজন নিহত হয়েছেন। শনিবার (২৫ নভেম্বর) বিকেল ৩টার দিকে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বেলপুকুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আরও দুজন গুরুতর আহতকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বাকিদেবপুর গ্রামের হাসান আলীর স্ত্রী পারভিন বেগম (৩৫), একই উপজেলার কান্তপুর গ্রামের আবু সাঈদের মেয়ে রাজশাহীর শাহমখদুম কলেজের এইচএসসির ছাত্রী শারমিন আক্তার (১৭), একই গ্রামের ইনসান আলীর ছেলে আইয়ুব আলী লাবু (৩৫) এবং সিএনজিচালক। তবে চালকের পরিচয় জানা যায়নি।

দুর্ঘটনায় গুরতর আহত রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকার কাটাখালী সিটি গেট এলাকার রিপনের হৃদয়সহ (১৮) দুজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নাটোর থেকে একটি ট্রাক রাজশাহী শহরের দিকে যাচ্ছিল। একই দিক থেকে যাত্রীবাহী একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাও আসছিল। ট্রাকটি পুঠিয়ার বেলপুকুর এলাকায় পৌঁছালে পেছন দিক থেকে যাত্রীবাহী অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের একটি দোকানে ঢুকে যায়। দুর্ঘটনায় সিএনজিটিও দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই সিএনজি অটোরিকশার এক যাত্রী মারা যায়। আর গুরুতর আহত চারজনকে উদ্ধার করে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাদের মধ্যে তিনজনকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

রামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক এম এ জলিল জানান, হাসপাতালে যে চারজনকে আনা হয় তাদের মধ্যে দুই নারীসহ তিনজন মারা গেছেন। আহত অন্য একজনের অবস্থাও সংকটাপন্ন।

জানতে চাইলে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) জামিরুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়েই বেলপুকুর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। শুনেছি দুর্ঘটনায় চারজন মারা গেছে। দুর্ঘটনার কারণ জানা যায়নি। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে পুলিশ কাজ করছে।