রাজনীতি থেকে অবসর নিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো

রাজনীতি থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে। মেয়ে সারা দুতার্তে-কার্পিও’র রাজনৈতিক পথচলা সুগম করতেই তিনি এই ঘোষণা দিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

শনিবার দুতার্তে জানান, তিনি আসন্ন নির্বাচনে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবেও লড়বেন না। মেয়াদ শেষে তিনি রাজনীতি থেকে অবসর নেবেন। দীর্ঘদিনের মিত্র সংসদ সদস্য বঙ্গ গো ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর দুতার্তে এই সিদ্ধান্ত জানান। ফিলিপাইনের সংবিধান অনুযায়ী দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে দ্বিতীয় ছয় বছর মেয়াদের জন্য নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী হতে পারবেন না। যদিও তার দলের একাংশ তাকে ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য মনোনীত করেছিল। তবে দুতার্তের ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার বিষয়টি নিয়ে অনেক সমালোচনাও হয়েছিল। একে দুতার্তের ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার চেষ্টা বলে মনে করছিলেন অনেকে। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে। এই ঘোষণার মাধ্যমে দুতার্তে তার মেয়ে সারার রাজনৈতিক অঙ্গনে পদচারণার পথ সুগম করে দিলেন বলে মনে করা হচ্ছে। দুতার্তে তার মেয়ে সারার রাজনৈতিক পদচারণার জন্য সুযোগ সৃষ্টি করছেন বলে দীর্ঘদিন ধরে গুজব শোনা যাচ্ছিল। এই ঘোষণা সেই গুজবকে আরও উস্কে দিল। ডাভাওয়ের মেয়র হিসেবে বাবার স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন সারা। গত মাসে সারা জানিয়েছিলেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে তিনি লড়বেন না। কারণ তিনি আর বাবা ঠিক করেছেন ২০২২ সালের জাতীয় নির্বাচনে তাদের মধ্যে যেকোনো একজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। তাই সারাকে জাতীয় নির্বাচনে জায়গা করে দিতেই দুতার্তের এই ঘোষণা বলে মনে করা হচ্ছে।