রাজধানীতে ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ২

রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোডে পৃথক ঘটনায় ট্রেনে কাটা পড়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এরা হলেন আল আমিন মোল্লা (২৫) ও অজ্ঞাতনামা একজন কিশোর (১৮)।

বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় ও ভোরে পৃথক দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মৃত আল আমিনের ভাগিনা মো. ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, আল আমিনের বাড়ি শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলার আলালপুর গ্রামে। তার বাবার নাম নুরুল হক মোল্লা। এক মেয়ের জনক আল আমিন সৌদি প্রবাসী। প্রবাসে যাওয়ার জন্য গত তিনদিন আগেই তিনি ঢাকায় আসেন। কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় এক আত্মীয়ের বাসায় ছিলেন। বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটায় তার সৌদির ফ্লাইট ছিল। এজন্য সকালে বাসা থেকে বের হয়ে কুড়িল বিশ্বরোড রেললাইন দিয়ে যাচ্ছিলেন। তখন পিছন দিক থেকে আসা একটি ট্রেনের ধাক্কায় তার মাথায় গুরুতর আঘাত পান। পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল নিয়ে যায়। ঢাকা রেলওয়ে থানার বিমানবন্দর পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সানু মং ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, বেলা ১১টার দিকে কুড়িল বিশ্বরোড ফ্লাইওভার ব্রিজের নিচে ’জামালপুর এক্সপ্রেস’ এর ধাক্কায় গুরুতর আহত হন আল আমিন। ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। অপরদিকে ওই একই এলাকায় ভোরে একটি ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় এক কিশোরের। তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম পরিচয় শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। তার পরনে ছিল শীতের লাল হুটি ও থ্রি কোয়ার্টার।

Related Posts