রজশাহীতে এসিআই মটরস’র বৈশাখ ও ইফতারের আয়োজন

রাজশাহীতে এসিআই মটরস’র আয়োজনে বাংলা নববর্ষ ১৪২৯ উদযাপন ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) নগরীর নওদাপাড়া আমচত্বর এলাকার স্টার হোটেল সংলগ্ন ফাঁকা স্থানে দিনব্যাপী এসিআই মটরস’র গ্রাহক এবং শুভানুধ্যায়ীদের নিয়ে এসব আয়োজন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রদর্শিত এসিআই মটরস’র সকল কৃষি পণ্যসমূহ উপস্থিত দর্শনার্থীদের মাঝে বিপুল সাড়া ফেলে। এছাড়াও সেখানে গেম জোন ও তথ্য সরবরাহের জন্য তথ্য সেবা কেন্দ্র রাখা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রকৌশলী সাইদুর রহমান বলেন, সরকার চায় কৃষিতে আধুনিকায়ন। কৃষিতে উন্নয়নের জন্য সরকার ভর্তূকি দিয়ে কৃষক, ড্রাইভার ও উদ্যোক্তাদের যন্ত্রপাতি সরবরাহ করছে। কৃষিকে প্রযুক্তি নির্ভর করতে প্রায় ১২টি যন্ত্রপাতির ৫০ শতাংশ ভর্তূকি দিচ্ছে সরকার। এসিআই মটরস দেশের শীর্ষ কৃষি যান্ত্রিকীকরণ প্রতিষ্ঠান। এগুলো সব আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন। এসিআই মটরস স্বল্পমূল্যে ও ডাউন পেমেন্টে এসব যন্ত্রপাতি সরবরাহ করে থাকে। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটি নানা ধরণের প্রশিক্ষণের আয়োজন করে।

এসিআই মটরস রাজশাহী এরিয়া হেড রাশেদুজ্জামান জানান, প্রতিবছর আমরা আয়োজন করে থাকি। তবে এবারের আয়োজনটি একটু ভিন্ন ।বৈশাখ ও রমজান একই সাথে। এসিআই মটরস’র বেশ কিছু পণ্যসমূহ আমরা ডিসপ্লে করছি। এসিআই মটরস সর্বনিম্ন মূল্যে ও ডাউন পেমেন্টে কৃষিতে যান্ত্রিকীকরণ করতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সরবরাহ করছে। এসিআই মটরসের কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে অনেক পরিবার উচ্চ চুড়ায় পৌছে গেছে। কৃষিতে প্রযুক্তি নিয়ে আরো কিভাবে কাজ করতে পারি আমরা তার চেষ্টা করছি।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে এসিআই মটরস বাজারজাত করছে সোনালিকা ট্র্যাক্টর, এসিআই পাওয়ার টিলার, ডিজেল ইঞ্জিন, পাম্প, রিপার, ইয়ানমার কম্বাইন হারভেস্টার, রাইস ট্রান্সপ্লান্টারসহ অত্যাধুনিক সব কৃষি যন্ত্রপাতি। এসিআই মটরস’র সোনালিকা ট্র্যাক্টর দেশের ১ নম্বর ট্র্যাক্টর ব্র্যান্ড। এসিআই মটরস’র রয়েছে দেশব্যাপী শক্তিশালী সার্ভিস নেটওয়ার্ক যার মাধ্যমে ৬ ঘণ্টার মধ্যে দেশের যে কোন গ্রাহককে প্রতিষ্ঠানটি বিক্রয়োত্তর সেবা প্রদান করে থাকে।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন রিকভারি টেরিটরি ম্যানেজার মাসুদ আলম, কর্মকর্তাবৃন্দ, স্থানীয় প্রশাসন এর বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দসহ এসিআই মটরস অসংখ্য গ্রাহক, টেকনিশিয়ান, ড্রাইভার, উদ্যোক্তা ও শুভানুধ্যায়ীগণ।

ইফতারের পূর্বে দেশ ও জাতির উন্নতি ও সমৃদ্ধ এবং কোম্পানির সফলতা কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

Related Posts