রংপুরে প্রেমিকাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা

রংপুরের কাউনিয়ায় সানজিদা আক্তার ইভা হত্যার নেপথ্যে ছিল প্রেমিকের সঙ্গে বিচ্ছেদ। আট মাস আগে প্রেমে বিচ্ছেদ ঘটানোর পর মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন প্রেমিক নাহেদুল ইসলাম সায়েম। এরই জের ধরে মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) রাতে ধারালো চাকু দিয়ে ইভাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেন তিনি। বুধবার (১৭ আগস্ট) ভোরে তাকে আটক করে পুলিশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন সায়েম। এ ঘটনায় সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে পুলিশের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র এতথ্য নিশ্চিত করেছে।

সায়েম রংপুরের পীরগাছা উপজেলার কল্যাণী ইউনিয়নের তাশুক উপাশু গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য নুর হোসেনের ছেলে। তিনি রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কাউনিয়া উপজেলার বালাপাড়া ইউনিয়নের হরিচরণ লস্কর গ্রামে (কুটিরপাড়-মধুপুর সড়ক) রাস্তার পাশ থেকে গুরুতর জখম অবস্থায় ইভাকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ইভা কাউনিয়া উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের গোড়াই গ্রামের ইব্রাহিম মিয়ার মেয়ে। সে পার্শ্ববর্তী পীরগাছা উপজেলার বড়দরগাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল-সি) আশরাফুল আলম পলাশ  জানান, প্রেমঘটিত বিষয়কে কেন্দ্র করে ইভাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার সায়েম এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় তার সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে
কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Related Posts