যুক্তরাজ্যে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ইউনিক

যুক্তরাজ্যে আঘাত হেনেছে ঘূর্ণিঝড় ইউনিক। এ কারণে দেশটিতে সর্বোচ্চ সতর্কতা (রেড অ্যালার্ট) জারি করা হয়েছে। ঝড়ে ক্ষতির আশঙ্কায় মানুষকে ঘরে অবস্থান করতে বলা হয়েছে। ঝড়টিকে গত কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়ংকর বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের আবহাওয়া দপ্তর লন্ডনসহ ইংল্যান্ডের দক্ষিণপূর্ব ও পশ্চিমাঞ্চলে বিরল রেড অ্যালার্ট জারি করেছে। এ রেড অ্যালার্টের অর্থ হচ্ছে ঝড়ের কারণে প্রাণহানির আশঙ্কা রয়েছে।

শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত রেড অ্যালার্ট জারি রয়েছে৷ এটি ডেভন, কর্নওয়াল এবং সমারসেটের উপকূলরেখা, সেই সঙ্গে ওয়েলসের দক্ষিণ উপকূলকে অন্তর্ভুক্ত করে। শুক্রবার ভোর ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ম্যানচেস্টার ও উত্তরের ওয়েলস এবং ইংল্যান্ডের বেশিরভাগ অংশে বাতাসের জন্য একটি নিম্ন সতর্কতা জারি রয়েছে। আবহাওয়া অফিস সতর্ক করেছে, ঘণ্টায় ১০০ মাইল বেগে ঝড় বয়ে যেতে পারে, যা উল্লেখযোগ্য ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। এতে বলা হয়েছে, ঘরবাড়ির ক্ষতি, ট্রেন বাতিল এবং বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ওয়েলসের সব ট্রেন পরিষেবা শুক্রবার স্থগিত করা হয়েছে। রেল কোম্পানিগুলো গ্রাহকদের ভ্রমণ না করার জন্য অনুরোধ করেছে। সেই সঙ্গে দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে সেনা বাহিনীকে। আসতে যাওয়া ঝড়ের প্রতিক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করতে সরকার একটি জরুরি কোবরা বৈঠক করছে। বুধবার ঝড় ডুডলিতে ব্যাপক ভ্রমণ বিঘ্ন ঘটায়। যার কারণে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে শহরটি।

আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে, স্থানীয় সময় শুক্রবার ৯০ মাইলের বেশি গতিতে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এর জেরে ইংল্যান্ডের বেশকিছু এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত তিন দশকের মধ্যে এটি সবচেয়ে ভয়ানক ঝড় হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। চলতি সপ্তাহে এটি যুক্তরাজ্যে দ্বিতীয় ঝড়। এর আগে একটি ঝড় স্কটল্যান্ড, ইংল্যান্ড ও নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে আঘাত হানে।

Related Posts