বেরোবি ছাত্রের আত্মহত্যা

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তানভীর আলম তুষার নামের রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) একজন শিক্ষার্থী।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাহেবগঞ্জ এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তুষার ওই এলাকার ব্যবসায়ী মহসিন আলীর একমাত্র ছেলে। তিনি বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অষ্টম ব্যাচের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র ছিলেন। স্থানীয়রা জানান, কয়েকদিন ধরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে বাবার সঙ্গে মনোমালিন্য চলছিল তুষারের। বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে নিজ শয়নকক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। এর আগে তার ফেসবুক আইডিতে ‘I QUIT for ever’ লিখে স্ট্যাটাস দেন তুষার। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে তার চাচাতো ভাই সাব্বির আলম তাকে ডাকতে এসে রুমের দরজা বন্ধ দেখেন। পরে ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তুষারকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে। পরিবারের বরাত দিয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত আলী সরকার বলেন, মোবাইলে জুয়া খেলতেন তুষার। এ নিয়ে পরিবারের সঙ্গে তার মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুষার গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।