ঈদের টানা ছুটিতে বেনাপোল বন্দরে বাড়তি নিরাপত্তা

ঈদের টানা ছুটিতে দেশের সবচেয়ে বড় বেনাপোল স্থলবন্দরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। বন্দরের অভ্যন্তরে রাখা কোটি কোটি টাকার মালামাল চুরি রোধ ও কেউ যাতে নাশকতার ঘটনা না ঘটাতে পারেন সেজন্য ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তার কাজ করে যাচ্ছে বন্দরের বেসরকারি নিরাপত্তা সংস্থা পিমা, আনসার ব্যাটালিয়ন ও পুলিশ।

বন্দর সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেল থেকে ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার পর রাত পর্যন্ত মালামাল লোড-আনলোড হয়েছে। এর পরপরই বন্দরের শেডগুলো সিল করে দেওয়া হয়েছে। তবে টানা ছুটিতে বন্দরের অনেক কর্মকর্তা পরিবারের সঙ্গে ঈদ কাটাতে বাড়িতে গেছেন। এ অবস্থায় বন্দরের অভ্যন্তরে ও বাইরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পালাক্রমে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা বন্দর পাহারা দিচ্ছেন।

বেনাপোল বন্দরের নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার ব্যাটালিয়নের কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ বলেন, এ বন্দরে দেশের কয়েকশ আমদানিকারকের কোটি কোটি টাকার পণ্য রয়েছে। টানা ছুটিতে বন্দরের কার্যক্রম বন্ধ। এ সময় যাতে কেউ সেখানে প্রবেশ করে পণ্যের ক্ষতি কিংবা কোনো রকম নাশকতামূলক ঘটনা না ঘটাতে পারেন সেজন্য নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। একই কথা বলেন বন্দরের বেসরকারি সিকিউরিটি সংস্থা পিমার কমান্ডার শহিদুল ইসলাম। বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূইয়া বলেন, টানা ছুটিতে বেনাপোল স্থলবন্দরে বাড়তি নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। দিনের পাশাপাশি রাতেও পুলিশের টহলদল কাজ করছে। বেনাপোল স্থলবন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার বলেন, টানা ছুটিতে যাতে বন্দরে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

Related Posts