বিয়ের পোশাকেই পরীক্ষার হলে কনে

বিয়ের পোশাকেই পরীক্ষার হলে কনে

বিয়ের পরের দিনই পরীক্ষা, তাই বিয়ের পোশাক পরেই পরীক্ষা দিতে হাজির হলেন কনে। কনের সেই ভিডিওটি ইতোমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে সামাজিকমাধ্যমে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশের ঝাঁসির এক বিশ্ববিদ্যালয়ে। কনের শ্বশুরবাড়ির সদস্যরাই উদ্যোগী হয়ে তাকে পৌঁছে দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে।

বিয়ের পরের দিন সকালে কনে দুই পরিবারের সামনেই পরীক্ষা দিতে যাওয়ার আরজি করলে কোনো রকম আপত্তি জানাননি তার বাপের বাড়ি ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। বিয়ের পর শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে পরীক্ষা দিতে গেলেন কনে, আর তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়ে যান তার দেবর। কনের নাম খুশবু রাজপুত। তিনি ঝাঁসির বুন্দেলখণ্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর স্তরের ছাত্রী।

কনের বেশে বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের কাছ থেকে আশীর্বাদও নিয়েছেন খুশবু। ছাত্রীর এমন সিদ্ধান্তে খুশি হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকারাও। পরীক্ষা সেরে বাড়ি ফিরে বিয়ের পরবর্তী পর্যায়ের সমস্ত আচার ও নিয়ম পালন করেছেন তিনি। তার পরেই বাড়ি ছেড়ে শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশে যাত্রা করেছেন।

খুশবু বলেন, বিয়ের নিয়মকানুন ঘণ্টা দুয়েক পরে করলেও কিছু ক্ষতি হবে না। তবে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ হাতছাড়া হয়ে গেলে আমার আফসোস থেকে যেত সারা জীবন। আমার পরিবারের লোকজন আমার কথা বুঝেছেন। তারা সব সময় আমার পাশে ছিলেন, আমায় সাহায্য করেছেন পদে পদে। আমি সব মেয়ের কাছেই অনুরোধ করব বিয়ের পরেও পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার জন্য।