বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে স্কুলছাত্রীর অনশন

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে স্কুলছাত্রীর অনশন

হবিগঞ্জের বাহুবলে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে এক স্কুলছাত্রী অনশন শুরু করেছেন। এ সময় প্রেমিকের মায়ের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ওই প্রেমিকা। রোববার (২৪ মার্চ) দুপুরে উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের কচুয়াদি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ওই প্রেমিকের নাম কাউছার মিয়া। তিনি উপজেলার পূর্ব রুপসংকর গ্রামের কাছাই মিয়ার ছেলে। পেশায় তিনি এক্সকাভেটর চালক। আর প্রেমিকা একই উপজেলার একটি বালিকা বিদ্যালয় থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছেন।

নির্যাতনের স্বীকার ভুক্তভোগী জানান, কাউছারের সঙ্গে ৮ মাসের প্রেমের সম্পর্ক তার। সে আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন হোটেলে গিয়ে আমার সঙ্গে দৈহিক সম্পর্কে জড়ায়। বিষয়টি জানাজানি হলে আমি তাকে বিয়ের চাপ দিলে সে আমাকে বিয়ে করতে অপারগতা প্রকাশ করে।

পরে বাধ্য হয়ে রোববার দুপুরে কাউছারের বাড়িতে আসলে তার মা আমাকে মারধর করে। আমার মোবাইল ও ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

কাউছারের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, বাড়ির বাইরে দাঁড়িয়ে আছে প্রেমিকা লাকি। হাতে কাটাছেড়ার দাগ।   কাউছার তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করবেন তিনি।

এ সময় অভিযুক্ত কাউছারকে তার বাড়িতে পাওয়া যায়নি। কাউছারের মা এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শামীম আহমেদ বলেন, বিষয়টি শুনেছি।

শ্রমিক নেতা বাচ্চু মিয়া বলেন, বিষয়টি যেহেতু শ্রমিকের তাই বিষয়টি নিয়ে সমাধান করার চেষ্টা করেছি। কিন্তু ব্যর্থ হয়েছি।

মিরপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার কদর আলী বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। ঘটনাস্থলে যাচ্ছি, দেখি কী অবস্থা।

বাহুবল সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আবুল খয়ের বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। থানায় অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।