বাঘাবাড়ি বন্দরে প্রত্যাহার ট্রাক ধর্মঘট

বাঘাবাড়ি বন্দরে প্রত্যাহার ট্রাক ধর্মঘট

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বাঘাবাড়ি নৌবন্দর থেকে সার সরবরাহের ট্রাক শ্রমিকরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ফলে উত্তরাঞ্চলে ১৬ জেলায় সার সরবরাহ শুরু হয়েছে। শনিবার (০৬ নভেম্বর) রাতে বাড়তি ভাড়া পাওয়ার আশ্বাসে শ্রমিকরা তাদের ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেন। এরপর থেকেই সার সরবরাহের ট্রাক চলাচল শুরু হয়।

এর আগে সন্ধ্যার দিকে বাঘাবাড়ি নৌবন্দরে শাহজাদপুর উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে বন্দর কর্তৃপক্ষ, ট্রাক মালিক, বন্দোবস্তকারী সংগঠন, ইজারাদার ও পুলিশের উপস্থিতিতে যৌথ সভায় ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়। বাঘাবাড়ি নৌ-বন্দরের ট্রাক বন্দোবস্তকারী সংগঠনের সভাপতি জালাল উদ্দিন মোল্লা বলেন, প্রশাসনের সঙ্গে যৌথ সভায় প্রতি ৫০ কেজির সারের বস্তায় দু’তিন টাকা করে ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। দূরের জেলাগুলোতে তিন টাকা ও কাছের জেলাগুলোতে ভাড়া দুই টাকা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়। সভার শেষে রাতেই সার লোড করা ট্রাকগুলো ছেড়ে গেছে। শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহ মো. শামসুজ্জোহা বলেন, তেলের দাম বাড়ানোয় ট্রাক মালিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রতি বস্তা সারে দুই-তিন টাকা ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। সার লোড-আনলোড ঠিাকাদাররা এ সিদ্ধান্ত মেনে নেওয়ায় ট্রাক মালিক-শ্রমিকরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। জরুরি সেবার আওতায় সারবাহী ট্রাকগুলো রাস্তায় চলাচল করবে। প্রসঙ্গত, জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে গত শুক্রবার (৫ নভেম্বর) থেকে সারাদেশে পরিবহন ধর্মঘট চলছে। ফলে বাঘাবাড়ি নৌ-বন্দর থেকে উত্তরাঞ্চলের ১৬ জেলার ১৪টি বাফার গুদামে রাসায়নিক ইউরিয়া সার সরবরাহ বন্ধ ছিল। যে কারণে ট্রাক মালিক-শ্রমিকরা ধর্মঘট প্রত্যাহার করায় উত্তরাঞ্চলে সার সরবরাহের জটিলতা কেটে গেছে।

অনলাইন ডেস্ক