বাংলাদেশি নারী শ্রমিকদের সৌদি আরবে বাঁচার আকুতি!

বাংলাদেশি নারী শ্রমিকদের সৌদি আরবে বাঁচার আকুতি!

বুঝে না বুঝে আর্থিক অনটনে কেউবা দালালের খপ্পরে পড়ে সৌদি আরব গিয়ে মাসুল দিচ্ছেন বাংলাদেশি নারী শ্রমিকরা। বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার প্রায় ২ শতাধিক নারী শ্রমিক সৌদি আরবের রিয়াদের জনদরিয়া এলাকার সফর জেলে আটক রয়েছেন।

ভুক্তভোগী নারী শ্রমিকদের অভিযোগ, তারা সেখানে নির্যাতনের শিকার, কাউকে কাউকে সেখান থেকে বিক্রিও করে দেওয়া হচ্ছে অন্যত্র। তাদের খাবার দেওয়া হচ্ছে না। খুব বেশি অসুস্থ হলেও চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। বিনা চিকিৎসায় অনেকে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন। এর মধ্যে কয়েকজন মারা গেছে।

জানা যায়, মানিকগঞ্জের রেখা বেগম পাসপোর্ট নং-A05819657, কেরানীগঞ্জের সেজু বেগম পাসপোর্ট নং AO6846514, ঢাকার আশুলিয়ার শান্তা আক্তার পাসপোর্ট নং A07632159, ঢাকার মিরপুরের হুসনে আরা পাসপোর্ট নং A00653367, পটুয়াখালীর আকলিমা বেগম পাসপোর্ট নং BY 0681956 এর মতো প্রায় ২ শতাধিক নারী মুক্তির দিন গুনছেন। কবে ফিরবে দেশে! মুক্তি পাবে নির্যাতনের ওই কারাগার থেকে!

ভুক্তভোগীরা আরও জানিয়েছেন, ফিলিপাইন, পাকিস্তান ভারতসহ অনেক দেশের নারীদের দ্রুতই দেশে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে সম্মানের সঙ্গে। কিন্তু বাংলাদেশের নারীদের সঙ্গে দিনের পর দিন অমানুষিক নির্যাতন করে গেলেও এদিকে ততটা তৎপর নয় কূটনৈতিকরা।

অভিযোগ রয়েছে, অনেক সময় দেশে পাঠানোর কথা বলে উলটো নির্যাতনকারী কফিলের হাতেই তুলে দেওয়া হচ্ছে কাউকে।

ভিডিও কলে কালবেলা প্রতিবেদককে ভুক্তভোগীর নির্যাতনের কথা বর্ণনা করে প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য কামনা করেন।

এ ব্যাপারে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সেখান থেকে অভিযোগ দায়ের করার পরামর্শ দেওয়া হয়।