• রবি. অক্টো ১৭, ২০২১

বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা সবুজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে চার্জশিট

সেপ্টে ২৩, ২০২১

ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি সবুজ আল সাহবা ও তার বান্ধবী বিবি ফাতেমা ঝুমুর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) মহানগর হাকিম মো. আশেকে ইমামের আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক রোকসানা আক্তার রুনা। আদালত চার্জশিটটি বিচারের জন্য ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৮ এ বদলি করেন।

গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর রাতে এক তরুণী ছাত্রলীগ নেতা সবুজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ নিয়ে এসে মিরপুর মডেল থানায় একটি মামলা করেন। পরে ওই রাতেই রাজধানীর একাধিক জায়গায় অভিযান চালিয়ে ছাত্রলীগ নেতা সবুজ ও বিবি ফাতেমা ঝুমুরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মামলায় বিবি ফাতেমাকে ধর্ষণে সহায়তাকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। বর্তমানে তারা দুজনই জামিনে রয়েছেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, ভুক্তভোগী তরুণী গত বছরের ৫ আগস্ট বিবি ফাতেমা ঝুমুরের বাসায় ঝিয়ের কাজ করতে আসেন। তারপর গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর চিকিৎসক দেখানোর জন্য আসামি বিবি ফাতেমা ঝুমু ওই তরুণীকে নিয়ে ঢাকায় আসেন। এরপর ছাত্রলীগ নেতা সবুজের বাসায় তাকে নিয়ে যান।

সেখানে ঝুমু ছাত্রলীগ নেতা সবুজকে ভাই হিসেবে কাজের মেয়ের সঙ্গে পরিচয় করে দেন। ওই দিন রাতে আসামি ঝুমু সেই তরুণীকে আসামি সবুজের রুমে পাঠায় এবং শারীরিক সম্পর্ক করতে বলে। পরে আসামি ঝুমুর সহযোগিতায় সবুজ সেই তরুণীকে ধর্ষণ করে। ফাতেমা জানায়, সে সকালে সবুজের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা নিয়ে ভিকটিমকে দেবে। এরপর রাতে তারা ওই বাসায় ঘুমিয়ে পড়ে। গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর তারা বাসায় চলে যায়। পরে তরুণী বিষয়টি তার স্বজনদের জানান।

উল্লেখ্য, গত ১ অক্টোবর বান্ধবীর বাসার গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে কারাগারে আটক ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সবুজ আল সাহবাকে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ইব্রাহিম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. সাইদুর রহমান হৃদয় স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ বহিষ্কার আদেশ দেওয়া হয়।