বহিষ্কার আওয়ামী লীগের আরও ১৭ নেতা

আগামী ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার ১০ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। উপজেলা জুড়ে বইছে এখন নির্বাচনী হাওয়া। পুরোদমে প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন প্রার্থীরা। এদিকে নির্বাচনকে সামনে রেখে দলের ১৭ জন বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীকে বহিষ্কার করেছে আওয়ামী লীগ। শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) তাদেরকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বহিষ্কৃতরা হলেন- বুধন্তি ইউনিয়নে দেলোয়ার হোসেন খান ও মো. মোবারক হোসেন, চান্দুরা ইউনিয়নে কাজী ফয়েজ, ইছাপুরা ইউনিয়নে জিয়াউল হক বকুল ও আকতার হোসেন, চম্পকনগর ইউনিয়নে ইউসুফ আলী ভূঁইয়া ও আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, পত্তন ইউনিয়নে তাজুল ইসলাম ও সামসুল আলম, চর ইসলামপুর ইউনিয়নে মোহাম্মদ ছানাউল্লাহ, বিষ্ণপুর ইউনিয়নে জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া ও জসিম উদ্দিন চৌধুরী, হরষপুর ইউনিয়নে রাজিব চন্দ্র বনিক ও মো. শাহজাহান, পাহাড়পুর ইউনিয়নে অলি আহমেদ ও জসিম উদ্দিন মলাই এবং সিঙ্গারবিল ইউনিয়নে আল-আমিন ভূঁইয়া। বহিষ্কৃতরা সবাই বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী। তারা সবাই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী। এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল-মামুন সরকার বলেন, বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সুপারিশের ভিত্তিতে শুক্রবার ১৭ বিদ্রোহী প্রার্থীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তাদেরকে একাধিকবার দলের পক্ষ থেকে তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের জন্য অনুরোধ করা স্বত্বেও তারা তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। তাই নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করায় গঠনতন্ত্রের ৪৭ ধারা মোতাবেক তাদের প্রত্যেককে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। উল্লেখ্য, চতুর্থ ধাপে আগামী ২৬শে ডিসেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিজয়নগর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান,মেম্বার পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এতে আওয়ামী লীগ ৫৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

Related Posts