ফেনীতে গরু ব্যবসায়ীকে হত্যা করে পলাতক কাউন্সিলর

ফেনীতে শাহজালাল নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যার পর ট্রাকবোঝাই গরু ছিনতাইচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত আবুল কালাম। অভিযান চালিয়ে কাউন্সিলরের রক্তমাখা পাঞ্জাবি ও দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। জানা গেছে, কিশোরগঞ্জ থেকে ট্রাকবোঝাই গরু নিয়ে ফেনী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সুলতানপুর সাহেব বাড়ির সামনে রাত আড়াইটার দিকে পৌঁছান ব্যবসায়ী শাহজালাল। এ সময় দুটি মোটরসাইকেলে করে আসা স্থানীয় কাউন্সিলর আবুল কালাম ও তার সহযোগীরা ট্রাকটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন। এতে বাধা দেন ব্যবসায়ী শাহজালাল ও তার স্বজনরা। ঘটনার একপর্যায়ে ব্যবসায়ী শাহজালালকে লক্ষ্য করে গুলি করেন কাউন্সিলর আবুল কালাম। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ওই ব্যবসায়ী। স্থানীয়রা বলছেন, সাদা পাজামা-পাঞ্জাবি পরে এসেছিল কাউন্সিলর। সে গুলি করে ট্রাকটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে। সঙ্গে সঙ্গে ব্যবসায়ী শাহজালাল মারা যান। খবর পেয়ে অভিযুক্ত কাউন্সিলের বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় তার বাড়ি থেকে রক্তমাখা পাঞ্জাবি ও দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। ঘটনার পর পলাতক রয়েছেন আবুল কালাম। ফেনীর পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরুন্নবী বলেন, কাউন্সিলর কালাম এক ব্যবসায়ীকে গুলি করে মরদেহ ফেলে চলে যায়। তার সঙ্গে থাকা দুই সহযোগীর একজনকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি। প্রতি বছর কোরবানির ঈদে ফেনী শহরের সুলতানপুর সাহেব বাড়ির আত্মীয়ের বাসায় গরু রেখে বিক্রি করেন কিশোরগঞ্জের শাহজালাল।

Related Posts