• রবি. অক্টো ২৪, ২০২১

প্রেমিকার গোপন ভিডিও সংগ্রহ করে অর্থদাবি , গ্রেপ্তার প্রেমিক

সেপ্টে ১৫, ২০২১

বগুড়ায় বিধবা এক নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তার ব্যক্তিগত গোপন ভিডিও সংগ্রহ করে চাঁদাবাজির অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার মধ্যরাতে সাভারের হেমায়েতপুর বড়ারী এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আজ বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে নেওয়া হয়।

অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম মনির হোসেন (২৯)। মনির নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার মহিষভাঙ্গা গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে।

জানা গেছে, ২৬ বছর বয়সী তালাকপ্রাপ্ত এক নারীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলেন মনির। পরে কৌশলে ওই নারীর কাছ থেকে তার ব্যক্তিগত গোপন ভিডিও সংগ্রহ করেন। সেগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেন। আরও টাকা দাবি করলে পুলিশের কাছে অভিযোগ দেন ওই নারী। পরে মনিরকে গ্রেপ্তার করে বগুড়া ডিবি পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে একটি স্মার্টফোন ও চারটি সিম জব্দ করা হয়।

বগুড়া ডিবি পুলিশের ইনচার্জ সাইহান ওলিউল্লাহ জানান, ভুক্তভোগী নারী ঢাকায় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। একই কারখানায় সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে চাকরি করতেন মনির। মনির একাধিক বিয়েও করেছেন। একই কারখানার কাজ করার সুযোগে মনির ওই নারীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করেন। তাকে ফোন করে মিথ্যা পরিচয়ে কথা বলতে থাকেন। এক পর্যায়ে মনিরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ওই নারীর।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, প্রথমদিকে মনির ওই নারীর কাছে তার ব্যক্তিগত গোপন ভিডিও চান। তা দিতে অসম্মতি জানান ভুক্তভোগী। একপর্যায়ে কৌশল হিসেবে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন মনির। পরে আবারও ওই নারীর সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করে ভুক্তভোগীকে বিয়ের প্রলোভন দেন। এভাবে কৌশলে ওই নারীর কাছ থেকে ব্যক্তিগত গোপন ভিডিও নিয়ে পরে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন মনির।

২০ হাজার টাকার মধ্যে ভুক্তভোগী আসামি মনিরকে আট হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে পাঠান ওই নারী। পরে আরও টাকা দাবি করলে ভুক্তভোগী বগুড়ার ডিবি পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন।

মনিরের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করা হয়েছে। তাকে বুধবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ডিবি পুলিশের কর্মকর্তা সাইহান ওলিউল্লাহ।