• রবি. অক্টো ১৭, ২০২১

পেরুকে হারিয়ে বাছাই পর্বে শতভাগ জয় ধরে রাখলো ব্রাজিল

সেপ্টে ১০, ২০২১

বাছাই পর্বে পেরুকে ২-০ গোলে হারিয়েছে  ব্রাজিল। সেলেসাওদের হয়ে গোল করেছেন নেইমার ও এভারটন।

এই ম্যাচে ব্রাজিলের জয়ের নায়ক নেইমার। নিজে একটি গোল করেছেন, আরেকটি গোলে রেখেছেন অবদান। আর্জেন্টিনার মত ব্রাজিলও প্রথম গোলের দেখা পায় ১৪ মিনিটে। নেইমারের এসিস্টে স্কোরশিটে নাম লেখান এভারটন রিবেইরো।

এরপর হাফ টাইমের ঠিক আগে, ম্যাচের ৪০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ব্রাজিল। ফাঁকায় একটি বল পেয়ে নেইমার সহজেই বল জালে জড়ান। দলের লিড ডাবল করেন প্রথম গোলের কারিগর নেইমার জুনিয়র। এভারটনের নেয়া শট গোলকিপার ঠেকালেও ফিরতি বল জালে জড়াতে ভুল করেননি পিএসজি ফরোয়ার্ড। হাফ টাইমের পর গোলমুখে দুই দলের ফরোয়ার্ডরা ব্যর্থ হলে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তিতের শিষ্যরা। এ জয়ে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে শতভাগ জয়ের ধারা বজায় রাখলো সেলেসাওরা।

এদিকে, বিশ্বকাপ বাছাইয়ে লিওনেল মেসির হ্যাট্রিকে বলিভিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। ক্ষুদে ফুটবল জাদুকরের দুর্দান্ত পারফরমেন্সে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে বলিভিয়ার বিপক্ষে বড় ব্যবধানে জয় তুলে নিয়েছে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে আলবেসেলস্তেরা। ম্যাচের ১৪ মিনিটেই পেলেকে ছুঁয়ে ফেলেন মেসি। আন্তর্জাতিক ম্যাচে পেলের ৭৭ গোলের রেকর্ডটাও ধরে ফেলেন ক্ষুদে জাদুকর। হাফ টাইমের পর দলের লিড ডাবল করেন অধিনায়ক মেসি। এ গোলে পেলেকে ছাড়িয়ে যান তিনি।

অনেকদিন পর আর্জেন্টিনার মনুমেন্তালে খেলা এবং সেই ম্যাচ দেখতে মাঠে উপস্থিত মেসির মা, ভাই। এমন ম্যাচে মেসি আরও একবার চমকে দিয়ে করেন জাতীয় দলের হয়ে সপ্তম হ্যাটট্রিক। হ্যাটট্রিকের পর মেসির গোলসংখ্যা এখন ৭৯টি। এর মাধ্যমে লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের সর্বোচ্চ গোলেরও রেকর্ড এখন মেসির দখলে। কেনমেবলে এত গোলের রেকর্ড দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের আর কোনও ফুটবলারের নেই।