পালাতে চেয়েছিলেন জাহ্নবী

পালাতে চেয়েছিলেন জাহ্নবী

২০১৮ সালে ‘ধড়ক’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয়েছিল জাহ্নবী কাপুরের। এরপর নানা ব্যতিক্রমী চরিত্রে অভিনয় করে নিজের স্বতন্ত্র পরিচয় গড়ে তুলেছেন শ্রীদেবী-কন্যা। তারকা কন্যা হলেও তরুণ এ অভিনেত্রীর পথচলা মসৃণ ছিল না। এক বিবৃতিতে এ তারকা-কন্যা এমনটি জানিয়েছেন।
শুরু থেকে মা শ্রীদেবীর সঙ্গে তুলনা টানা হতো জাহ্নবীর। এমনকি তাঁকে নানাভাবে কটাক্ষ করা হতো। সে সময়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়তেন। তবে এখন তিনি এসব নিয়ে বাঁচতে শিখেছেন। ‘মিলি’, ‘বাওয়াল’, ‘গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কারগিল গার্ল’, ‘গুডলাক জেরি’র মতো ছবির পর এখন তাঁর কদর বেড়েছে। এসব ছবির মাধ্যমে তিনি নিজের প্রতিভা প্রমাণ করার সুযোগ পেয়েছেন।

লিখিত এক বিবৃতিতে জাহ্নবী নিজের জীবনের কিছু কথা প্রকাশ করেছেন। নায়িকা শ্রীদেবী নামের ‘ব্যাগেজ’ সম্পর্কে বলেছেন, ‘আমি মনে করি না যে তিনি যা করেছেন, তা আর কেউ করতে পারবেন। তাঁর মতো কেউ বৈচিত্র্যময় হয়ে উঠতে পারবেন না। তাঁর যা উচ্চতা, সেই উচ্চতায় কেউ পৌঁছাতে পারবেন বলে আমি মনে করি না। তাই দয়া করে আমাকেও রেহাই দিন।’

 জাহ্নবী কাপুর
জাহ্নবী কাপুরইনস্টাগ্রাম থেকে

জাহ্নবী যোগ করেন, ‘মাম্মার নাচের সঙ্গে আজকের প্রজন্মের নায়িকাদের নাচের স্টেপের তুলনা করা হয়। আমি আর আমার বোন আগে এসবে খুব নার্ভাস হয়ে পড়তাম। এসব আমাদের ওপর খুব চাপ সৃষ্টি করত। বুঝেছিলাম যে শ্রীদেবীর মেয়ে হওয়া সহজ কথা নয়। এত বড় ব্যাগেজের ভারে আমি নুইয়ে পড়েছিলাম। ধীরে ধীরে আমি বুঝলাম যে এসব প্রেরণা হিসেবে নিলে, আমি হয়তো একটু হালকা বোধ করব। আমি বুঝলাম যে আমার তুলনা মাম্মার (শ্রীদেবী) সঙ্গে করা হচ্ছে, সে রকম উচ্চতার অভিনেত্রীর সঙ্গে করা হচ্ছে। এ বিষয়গুলো আমাকে কোনো না কোনোভাবে অনুপ্রাণিত করতে শুরু করেছিল।’

মায়ের প্রসঙ্গ টেনে এ অভিনেত্রী বিবৃতিতে আরও বলেছেন, ‘মাম্মা আমায় বলেছিলেন যে আমার প্রথম ছবি বা পারফরম্যান্সের সঙ্গে তাঁর প্রথম ছবি বা পারফরম্যান্সের কখনোই তুলনা টানা হবে না। তাঁর শেষ ছবির সঙ্গে এ তুলনা করা হবে বলে মাম্মা বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন যে এই চাপ মাম্মা তাঁর শত্রুর জন্যও চান না। আমি আমার অভিষেক ছবির সময় বুঝেছিলাম যে মাম্মার কথা কতটা সত্যি।’

মায়ের সঙ্গে জাহ্নবী
মায়ের সঙ্গে জাহ্নবীইনস্টাগ্রাম

জাহ্নবী নিজের অভিষেক ছবি ধড়ক-এর প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন, ‘আমি আমার প্রথম ছবির কাজ যখন শুরু করেছিলাম, আমি তখন সচেতনভাবেই তাঁর (শ্রীদেবী) আলো থেকে নিজেকে দূরে রাখতে চেয়েছিলাম। কারণ, লোকে তাহলে বলবে যে শ্রীদেবীর মেয়ে বলেই আমি আমার প্রথম ছবি পেয়েছি। আমি তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে মায়ের থেকে কোনো সাহায্য আমি নেব না। আমি আমার মায়ের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা স্টাইলে অভিনয় করব। আমি তাঁকে আমার ছবির সেটে না আসার কথা বলতাম। কিন্তু এখন আমার মনে হয়, সেই সময় আমি সত্যি বোকা ছিলাম। আমি তাঁর মেয়ে, আর এই সত্যটা থেকে আমি কখনো পালাতে পারব না। এখন তিনি আর নেই, আর এটা আমার সবচেয়ে বড় অনুশোচনা।’

 জাহ্নবী কাপুর
জাহ্নবী কাপুরইনস্টাগ্রাম

সামনে জাহ্নবীকে বেশ কিছু বড় প্রকল্পে দেখা যাবে। তিনি ‘মিস্টার অ্যান্ড মিসেস মাহী’, ‘উলঝ’ আর জুনিয়র এনটিআরের সঙ্গে ‘দেবারা পার্ট ওয়ান’ ছবিতে আসতে চলেছেন। ‘দেবারা পার্ট ওয়ান’ আগামী বছরের ৫ এপ্রিল মুক্তি পাবে।