নিখোঁজের দুদিন পর নদীতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ

নিখোঁজের দুদিন পর নদীতে মিলল স্কুলছাত্রীর মরদেহ

মানিকগঞ্জে নিখোঁজের দুদিন পর কালিগঙ্গা নদী থেকে এক স্কুল শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার (৪ মার্চ) সকাল ১১টার দিকে এ স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সদর থানার ওসি মো. হাবিল হোসেন।

নিহত সামিয়া ইসলামের পিতা মো. সাইফুল ইসলাম মানিকগঞ্জের মূলজান এলাকায় পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে লাইনম্যানের চাকরি করেন। নিহত সামিয়া মানিকগঞ্জ সুরেন্দ্র কুমার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

পুলিশ ও নিহত পরিবার সদস্য থেকে জানা যায়, শনিবার দুপুরে বাড়ি থেকে কোচিংয়ের উদ্দেশে বের হয় সামিয়া। বিকেলে তার মা কোচিং সেন্টারে মেয়েকে আনতে গিয়ে জানতে পারেন সামিয়া কোচিংয়ে যায়নি। এরপর বিভিন্নস্থানে তাকে খোঁজ করেও পায়নি তার পরিবার।

সন্ধ্যার দিকে লোকমুখে জানা যায় পৌরসভার ৯ ওয়ার্ডের চরবেউথা এলাকায় সামিয়ার স্কুল ব্যাগ পাওয়া গেছে। পরে পরিবারের লোকজন ওই স্কুল ব্যাগ নিয়ে আসেন। এরপর সদর থানায় নিখোঁজের বিষয়ে জিডি করা হয়।

সামিয়ার বাবার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা জেলার চান্দিনা গ্রামে। সে পরিবার নিয়ে মানিকগঞ্জ শহরের গঙ্গাধরপট্টি এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করেন।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ওসি হাবিল হোসেন জানান, সোমবার সকালে কুশেরচর এলাকায় সামিয়ার লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ সকাল ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গে লাশ পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আইনিব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।