নভেম্বরে বাংলাদেশ সফরে আসছে ভারত

ঘরের মাঠে আফগানিস্তান সিরিজের পর জাতীয় দলের ব্যস্ততা এবার দক্ষিণ আফ্রিকা সফর নিয়ে। দিন কয়েক পরেই প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টেস্ট খেলতে উড়াল দেবে তামিম-মাহমুদউল্লাহরা।

এদিকে, ব্যস্ত সূচিতে ঠাসা চলতি বছরে রয়েছে অনেকগুলো ম্যাচ। দক্ষিণ আফ্রিকার পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ রয়েছে বাংলাদেশের। এদিকে, অক্টোবরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়া যাবে টিম টাইগার্স। জানা গেছে, বিশ্বকাপের পরপরই নভেম্বরে বাংলাদেশ সফরে আসবে ভারতীয় ক্রিকেট দল।

বিসিবি পরিচালক ও ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসও সোমবার (৬ মার্চ) হাইভোল্টেজ ওই সিরিজটি নিয়ে কথা বললেন। গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, বিষয়টা এখনো শতভাগ নিশ্চিত নয়। এটা আমাদের প্রস্তাব। এখন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড রাজি হলেই দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের সঙ্গে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজও অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে, সিরিজের সম্ভাব্য সময়কাল নভেম্বর হলেও এখনো দিন-তারিখ ঠিক হয়নি। টেস্ট আগে না ওয়ানডে আগে এবং কোথায় কোন খেলা অনুষ্ঠিত হবে তাও এখনো চূড়ান্ত হয়নি। তবে বিসিবির প্রস্তাবে বিসিসিআই ওয়ানডে সিরিজ খেলতে রাজি হলেই সময়সূচি এবং ভেন্যু চূড়ান্ত করা হবে বলে জানা গেছে।  এদিকে, আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুই ম্যাচ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। তবে টেস্টের পাশাপাশি যোগ হয়েছে ওয়ানডে ম্যাচও। তিন ম্যাচের এই ওয়ানডে সিরিজ আইসিসি ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ। ১৮ মার্চ মাঠে গড়াবে প্রথম ওয়ানডে। সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ২০ ও ২৩ মার্চ। ওয়ানডে সিরিজ শেষে শুরু হবে সাদা পোশাকের লড়াই। প্রথম টেস্ট মাঠে গড়াবে ৩০ মার্চ। এরপর দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট শুরু হবে ৭ এপ্রিল। 


ওয়ানডে স্কোয়াড
তামিম ইকবাল খান (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, এবাদত হোসেন চৌধুরী, নাসুম আহমেদ, ইয়াসির আলি চৌধুরী, মাহমুদুল হাসান জয় ও সৈয়দ খালেদ আহমেদ।

টেস্ট স্কোয়াড
মুমিনুল হক (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল খান, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন কুমার দাস, ইয়াসির আলী চৌধুরী, তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, আবু জায়েদ চৌধুরী, এবাদত হোসেন, শরিফুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, শাদমান ইসলাম ও কাজী নুরুল হাসান সোহান।
 

Related Posts