ধর্ষণের পর আত্মহত্যার চেষ্টা যুবকের

নীলফামারীর সৈয়দপুরে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের পর ধর্ষণকারী যুবক আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন।  বৃহস্পতিবার বিকালে সদর উপজেলা শহরের গোলাহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ফয়সাল (২৮), একই এলাকার নাঈম হোসেনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন শিশুটির বাবা।  পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন দুই সন্তানের বাবা ফয়সালের স্ত্রী বাসায় ছিলেন না। তিনি একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের বালাপাড়া গ্রামে বাবার বাড়িতে যান।  এ সুযোগে ফয়সাল মেয়েটিকে রাস্তা থেকে কৌশলে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে আসেন এবং শিশুটিকে ধর্ষণ করেন।  স্থানীয়দের সন্দেহ হলে বাড়ির ভেতর ঢুকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে ও ফয়সালকে আটকে রাখে। একপর্যায়ে ওই যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেন। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মামুনা আক্তার জানান, আত্মহত্যার চেষ্টাকারী ফয়সালকে অক্সিজেন দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি শঙ্কামুক্ত। সৈয়দপুর থানার ওসি আবুল হাসনাত খান জানান, ভিকটিমকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার জন্য নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আর আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Related Posts