দেশের উন্নয়ন দেখে অনেকে ষড়যন্ত্র করছে : প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে অনেকের সহ্য হচ্ছে না, এদের অনেকেই দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আলোচনা সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানান।

দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের ‘আগাছা’ আখ্যা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আগাছা থাকবে এটা ঠিক। কিন্তু আগাছা কী করতে হবে, সেটা বাঙাালিকে ভাবতে হবে। আমরা আমাদের স্বাধীনতার সুফল বাংলাদেশের মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে চাই বলেও জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছি। কিন্তু একটি বিষয় সকলকে লক্ষ্য রাখতে হবে, যখনই বাঙালি কিছু পায় বা মর্যাদা অর্জন করে বা বাঙালি এগিয়ে যেতে থাকে উন্নয়নের দিকে তখনই অনেক চক্রান্ত ষড়যন্ত্র শুরু হয়। কারণ পরাধীনতার শিকলে আবদ্ধ থাকতেই তারা পছন্দ করে।

এসময় তিনি আরো জানান, একটা শ্রেণি আছে তারা কখনো আত্মমর্যাদা নিয়ে চলতে জানে না। তারা আত্মমর্যাদা বিকিয়ে দিয়েই আত্মতুষ্টি পায়। আর সেই শ্রেণিটা এখনো রয়ে গেছে আমাদের সমাজে। সেই জন্য যতই আমরা উন্নতি করি, যতই এগিয়ে যাচ্ছি, সারা বিশ্ব যখন সেই উন্নয়ন দেখে আমাদের দেশের কিছু লোক কিন্তু সব সময় চিরদিন অন্ধই থাকে।

সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভারত-পাকিস্তান ভাগের পর থেকেই বাংলা ভাষার উপর আঘাত এসেছে। কিন্ত তা রুখে দেয় বাঙালী। ভাষা আন্দোলন সংগঠিত করতে বঙ্গবন্ধুর ব্যাপক অবদান থাকলেও এদেশের একটি গোষ্ঠী তা স্বীকার করতে চায় না বলেও মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশর উন্নয়ন এখন বিশ্বের রোল মডেল। অথচ একটি গোষ্ঠী এসব সহ্য করতে না পেরে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। যেকোনো চক্রান্ত রুখে দিয়ে দেশ আরো এগিয়ে যাবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

Related Posts