তিন দলকে জরিমানা নির্বাচনে খরচ কত, না জানানোয়

তিন দলকে জরিমানা নির্বাচনে খরচ কত, না জানানোয়

নির্ধারিত সময়ে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে দলীয় ব্যয়ের হিসাব জমা না দেওয়ায় তিনটি রাজনৈতিক দলকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে ১৫ দিনের মধ্যে দলীয় ব্যয়ের হিসাব দিতে বলা হয়েছে।

৭ জানুয়ারির দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ২৮টি দল অংশ নেয়। এর মধ্যে নির্ধারিত সময় ৭ এপ্রিলের মধ্যে ২৫টি দল দলীয় নির্বাচনি ব্যয়ের বিবরণী জমা দিয়েছে।

রবিবার (২ জুন) ইসির উপসচিব (নির্বাচনি সহায়তা ও সমন্বয়) মো. মাহবুব আলম শাহ্ জানান, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ (গামছা), গণফ্রন্ট (মাছ) ও বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (কুঁড়েঘর)– এ তিনটি দলকে জরিমানাসহ সময় বেঁধে দিয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দলীয় ব্যয়ের হিসাব না দিলে ৩০ দিন সময় দিয়ে সতর্কতা নোটিশ, এরপর ১০ হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে আরও ১৫ দিন সময় এবং বর্ধিত সময়েও হিসাব জমা দিতে ব্যর্থ হলে নিবন্ধন বাতিলের ক্ষমতা রয়েছে ইসির।

বর্তমানে নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত দল রয়েছে ৪৪টি। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ, সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টিসহ ২৮টি দল এবারের ভোটে অংশ নিয়েছে। অন্যদিকে বিএনপিসহ ১৬টি দল নির্বাচন বর্জন করেছে।

এবার শতাধিক প্রার্থী দেয় এমন দলগুলোর মধ্যে রয়েছে– আওয়ামী লীগ (নৌকা) ২৬৬ জন, জাতীয় পার্টি (লাঙ্গল) ২৬৫ জন, তৃণমূল বিএনপি (সোনালী আঁশ) ১৩৫ জন ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টি (আম) ১২২ জন। সর্বনিম্ন চার জন প্রার্থী দিয়েছে এমন দলও রয়েছে।

প্রার্থী অনুপাতে দলগুলোর ৭৫ লাখ টাকা থেকে সাড়ে ৪ কোটি টাকা নির্বাচনি ব্যয়ের সুযোগ ছিল। ৫০ জনের কম প্রার্থী হলে ৭৫ লাখ টাকা, ৫০-১০০ প্রার্থী হলে দেড় কোটি টাকা, ১০১-২০০ প্রার্থী হলে ৩ কোটি টাকা এবং ২০১ প্রার্থীর বেশি হলে সাড়ে ৪ কোটি টাকা ব্যয়ের সুযোগ রয়েছে আইনে।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মোট নির্বাচনি ব্যয় জানানো হয়েছে ২ কোটি ৭৬ লাখ ৭৮ হাজার ১২০ টাকা।