তিনদিনের মধ্যে সাগরে লঘুচাপ: আবহাওয়া অধিদপ্তর

মঙ্গলবারের তুলনায় আজ (বুধবার) ঝড়-বৃষ্টির প্রবণতা কমবে, তাই দিনের তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া আগামী তিনদিনের মধ্যে আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে, পরবর্তী সময়ে সেটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বজ্রপাত ও বৃষ্টির শব্দে বুধবার (৪ মে) ঈদের পরের দিন ছুটির সকালে ঘুম ভেঙেছে নগরবাসীর। ভোর সাড়ে পাঁচটার পর ঢাকার আকাশে ছিল মেঘের গর্জন। মুহুর্মুহু বজ্রপাতে অনেকেই ঘুম থেকে জেগে ওঠেন। এরপরই শুরু হয় বৃষ্টি। অবশ্য সকাল ৮টার মধ্যে থেমেও যায় বৃষ্টি।

মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে আজ সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগ ছাড়া সারাদেশেই বৃষ্টি হয়েছে। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি ৬৯ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে। ঢাকায় ১৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা চট্টগ্রামে ছিল ৩৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ বলেন, বুধবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বিজলি চমকানোসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ সময়ে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি এবং রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ সেলসিয়াস বাড়তে পারে বলেও জানান এ আবহাওয়াবিদ। তিনি আরও জানান, ৭২ ঘণ্টার (৩ দিন) মধ্যে আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। অন্যদিকে বুধবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজার অঞ্চলগুলোর উপর দিয়ে পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ থেকে ৮০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকায় নদীবন্দরগুলোকে ২ নম্বর নৌ-হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র পশ্চিম বা উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়োহাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকায় নদীবন্দরগুলোতকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে পূ্র্বাভাসে।

Related Posts