ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলা, কারাগারে ৩ সাংবাদিক

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের হওয়া মামলায় রাঙামাটি জেলার তিন সাংবাদিককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। তারা হলেন- মো. আলমগীর মানিক (৩৮), মাসুদ পারভেজ নির্জন (২৪) ও শহিদুল ইসলাম হৃদয় (২৫)।

একই মামলায় জাহেদা আমিন নামে আরেক সাংবাদিককে জামিন দিয়েছেন বিচারক। এদের মধ্যে আলমগীর মানিক একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের রাঙ্গামাটি জেলা প্রতিনিধি, জাহেদা আমিন বাংলাদেশ টেলিভিশনে (বিটিভি) এবং অপর দুজন স্থানীয় পত্রিকায় কর্মরত। চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এস কে এম তোফাইল হাসানের আদালত বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) এ আদেশ দেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আর্জিয়া আলম আখিঁ নামের এক নারী ও তার স্বামী শেখ ইমতিয়াজ কামালের ফেসবুক আইডিতে ছদ্মবেশ ধারণ করে দুজনের বিরুদ্ধে আপত্তিকর, মানহানিকর কমেন্ট করার অভিযোগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাঙামাটি কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা দায়ের হয়। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ওই মামলায় উল্লিখিত চারজনকে আসামি করা হয়। পরে ওই মামলায় আসামিরা হাইকোর্টে আগাম জামিন আবেদন করতে গেলে আদালত তাদের ছয় সপ্তাহ সময় দিয়ে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালে হাজির হওয়ার নির্দেশনা দেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বুধবার আসামিরা আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত আসামি জাহেদা বেগমকে জামিন দিলেও বাকি তিনজনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট শোয়েব আলী বলেন, ভুক্তভোগী নারীর স্বামী দৈনিক অবজারভার পত্রিকার রাঙামাটি প্রতিনিধি। আসামিরা আদালতে নিজেদের ‘বোনাফাইড সাংবাদিক’ বলে পরিচয় দিয়েছেন। অপরাধের গুরুতর বিবেচনায় আদালত তিন আসামিকে কারাগারে পাঠিয়েছেন। এছাড়া নারী বিবেচনায় জামিন পেয়েছেন একজন। এ বিষয়ে সাইবার ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মঞ্জুরুল আলম  বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ সালের ২৩/২৪/২৫/২৯/৩৪ ধারায় করা মামলায় চার আসামি হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। বিচারক শুনানি শেষে তিনজনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এক আসামিকে ২০ হাজার টাকা বন্ডে জামিন দেন।

Related Posts