ট্রেন চলাচল শুরু গাজীপুরে দুর্ঘটনাকবলিত সেই রেলপথ দিয়ে

ট্রেন চলাচল শুরু গাজীপুরে দুর্ঘটনাকবলিত সেই রেলপথ দিয়ে

গাজীপুরের ভাওয়াল রেলস্টেশন ও রাজেন্দ্রপুর রেলস্টেশনের মধ্যবর্তী বন খড়িয়া এলাকায় রেললাইন কেটে ফেলে ইঞ্জিনসহ ৭ বগি লাইনচ্যুত হয়। মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনার সাড়ে ১৫ ঘণ্টা পর উদ্ধারকারী দলের প্রচেষ্টায় ওই রুটে ট্রেন চলাচলের উপযোগী করা হয়। তবে বৃহস্পতিবার সকালে মেরামত হওয়া রেলরুট দিয়ে প্রথম বলাকা এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল করে বলে নিশ্চিত করেছেন রেলওয়ে পুলিশ।

জয়দেবপুর রেলওয়ে জংশন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শহীদুল্লাহ হিরো বলেন, গতকাল সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে বনখড়িয়া এলাকায় ঢাকা ময়মনসিংহ রেললাইনের মেরামত কাজ শেষ করে ট্রেন চলাচলের জন্য উপযোগী করা হয়। বৃহস্পতিবার (১৪ ডিসেম্বর) সকাল ৭টার দিকে বলাকা এক্সপ্রেস ট্রেন মেরামত করা রেললাইন অতিক্রম করেছে।

নাশকতাকারীরা রেললাইনের ২০ ফুট কেটে ফেলায় মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনসহ ৭টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এতে ঘটনাস্থলেই এক যাত্রী মারা যান। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় রেলওয়ে বিভাগের। এ ঘটনায় রেলওয়ে বিভাগের পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য, দুর্ঘটনার কারণে ময়মনসিংহ-ঢাকা রেল সড়কের ৬০০ ফুট রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে রেল কর্তৃপক্ষ ও উদ্ধারকারী দল রেললাইন মেরামত অংশগ্রহণ করে। তাদের প্রচেষ্টায় স্বাভাবিক হয় ট্রেন চলাচল। রেল চলাচল চালু করা হলেও দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত বগি ও ইঞ্জিন রেল সড়কের দুপাশে পড়ে রয়েছে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের ঢাকা বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক সফিকুর রহমান বলেন, দুর্ঘটনায় শুধু রেললাইনের বগি-ইঞ্জিনই ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। ইঞ্জিন-বগির পাশাপাশি ৬শ ফুট রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১০০টি স্লিপার পুরোই ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তিনশ ফুট রেললাইনে নতুন করে পাত বসানো হয়। লাইনচ্যুত বগিগুলো নিরাপদ দূরত্বে রেল সড়কের পাশে সরিয়ে রাখা হয়েছে।