টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা নিহত

কক্সবাজারে টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন।

বুধবার রাত ২টার দিকে টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কের জঙ্গলে এ ঘটনা ঘটে।মো নুরু মিয়া (৪০) টেকনাফ নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি ব্লকের বাসিন্দা ছিলেন। র‌্যাবের দাবি, নুরু মিয়া রোহিঙ্গা ডাকাত জকির গ্রুপের সক্রিয় সদস্য ছিলেন। এ ঘটনায় র‌্যাব দুই সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল,২ রাউন্ড গুলিসহ ১টি ম্যাগাজিন ও ৩টি দেশীয় অস্ত্র, ২টি তাজা কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। কক্সবাজার র‍্যাব-১৫ এর সিপিএসসি কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। র‍্যাব জানায়, বুধবার রাতে ওই এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণকালে গোপন সংবাদে অভিযান যায় র‌্যাবের একটি টহল দল। এ সময় ঘটনাস্থলে পৌঁছালে র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে ১০/১২ জনের একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল। র‌্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। এতে ১৫ মিনিট ধরে গুলাগুলির একপর্যায়ে ডাকত দলের সদস্যরা জঙ্গলে ভেতর পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব  অস্ত্রসহ ও গুলিবিদ্ধ আহত এক অস্ত্রধারীরকে উদ্ধার করে  টেকনাফে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যু তাকে ঘোষণা করেন। মেজর মেহেদী হাসান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সসবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এবং আহত র‍্যাব সদস্যদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।