• রবি. অক্টো ২৪, ২০২১

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে থাকছেন না স্টোকস

সেপ্টে ৪, ২০২১

ইংলিশ ক্রিকেট ভক্তদের জন্য বড় দুঃসংবাদ। আগামী মাসেই সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এই টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ডকে সম্ভবত খেলতে হবে তাদের সেরা অলরাউন্ডারকে ছাড়াই।

ইংলিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে পাওয়া গেছে এমন ইঙ্গিত। স্টোকসের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র জানিয়েছে, খেলা তো পরে, এই মুহূর্তে ক্রিকেটের কথাই ভাবছেন না এই অলরাউন্ডার।

বর্তমানে ক্রিকেট থেকে স্বেচ্ছা নির্বাসনে আছেন স্টোকস। মানসিক চাপ এবং আঙুলের চোটের কারণে চলতি বছরের শুরুর দিকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিরতি নেন এই ইংলিশ তারকা।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে আইপিএলের দ্বিতীয়পর্ব। রাজস্থান রয়্যালস অলরাউন্ডার স্টোকস ইতিমধ্যেই এই পর্ব থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন।

এদিকে আগামী শুক্রবারই শেষ হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দল জমা দেয়ার সময়। ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড আগেই জানিয়েছে, স্টোকসকে কোনো ব্যাপারে তারা জোর করবে না। তাই নিজে থেকে না চাইলে বিশ্বকাপ দলে তার থাকার সম্ভাবনা নেই।

২০১৬ সালে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের প্রসঙ্গ আসলেই স্টোকসের নামটি চলে আসে অবধারিতভাবে। সেই বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের হয়ে শেষ ওভারটি করেছিলেন এই অলরাউন্ডার, যাতে টানা চার ছক্কা হাঁকিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে শিরোপা জেতান কার্লোস ব্রেথওয়েট।

তবে তিন বছর পর (২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপ) এই স্টোকসই ইংল্যান্ডকে প্রথমবারের মতো বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করায় অবদান রাখেন। টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় ছিলেন তিনিই।

ইয়ন মরগ্যানের ইংল্যান্ডের সামনে একমাত্র দল হিসেবে একই সময়ে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ট্রফি ধরার হাতছানি। স্টোকস টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটা না খেলতে পারলে আসলেই বড় ধাক্কা হবে ইংলিশদের জন্য।